রাজ্যে শুরু হতে চলেছে নতুন পদ্ধতিতে রেশন বিলি

৩১/৭/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ২০২১ এ বিধানসভা ভোট। অন্যদিকে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে বিরোধীদের দুর্নীতির অভিযোগের পারদ ক্রমেই চড়ছে। এবার বিরোধীদের জোরদার বার্তা দিতে রেশন ব্যবস্থায় এসএমএস এবং বায়োমেট্রিক পদ্ধতি শুরু করার নির্দেশ দিল রাজ্যের খাদ্য দফতর। এই ব্যবস্থায় রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ডের নম্বর ও গ্রাহকের ফোন নম্বর যুক্ত করে দেওয়া হবে রেশন।যাতে

বেশি মানুষের কাছেই খাদ্য দফতরের পরিষেবা সরাসরি পৌঁছয়। লকডাউনের নিয়ন্ত্রণ বিধি এখনও কার্যকর থাকায় নতুন সিদ্ধান্ত রূপায়ণে তাড়াহুড়ো করবে না দফতর। সতর্কতা-বিধি মেনেই তা বাস্তবায়িত হবে কাজ। মাসের তৃতীয় বা চতুর্থ সপ্তাহে রেশন কার্ড, আধার কার্ড, মোবাইল নিয়ে এলাকার রেশন দোকানে যোগাযোগ করতে বলা হবে উপভোক্তাদের। রেশন দোকানে ‘ই-পস’ যন্ত্রের মাধ্যমে উপভোক্তার ডিজিটাল রেশন কার্ডের নম্বরের সঙ্গে আধার নম্বর যুক্ত হবে।

পরের ধাপে যুক্ত হবে উপভোক্তার মোবাইল নম্বরও। আধার-সংযুক্তির পরে বায়োমেট্রিক যাচাই প্রক্রিয়ায় আঙুলের ছাপ দিয়ে ‘ই-পস’ যন্ত্রের মাধ্যমে রেশন তুলতে পারবেন উপভোক্তা। বায়োমেট্রিক পদ্ধতি সফল না-হলেও মোবাইল নম্বরে আসা ‘ওটিপি’ নম্বর দিয়ে রেশন তোলা যাবে। রেশন সংগ্রহের সঙ্গে সঙ্গে উপভোক্তা প্রাপ্তির বার্তা পাবেন নিজের মোবাইলে। খাদ্য দফতরের এক কর্তা বলেন, “রেশন ডিলার গ্রাহকের রেশন কার্ড-আধার-মোবাইল নম্বর যুক্ত করতে বাধ্য। সরকারের লক্ষ্য, গোটা ব্যবস্থায় স্বচ্ছতা আনা। উপভোক্তার রেশন যাতে বেহাত না-হয়, তা নিশ্চিত করা হবে।” এবার দেখার বিষয়, সরকারের এই প্রচেষ্টা কতটা ফলদায়ী হয়।

Leave a Reply