শনিবার, ফেব্রুয়ারী 4, 2023
বাড়িরাজনীতিবাম আমলের সাফল্য পরোক্ষে স্বীকার করলেন মুখ্যমন্ত্রী, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় ।

বাম আমলের সাফল্য পরোক্ষে স্বীকার করলেন মুখ্যমন্ত্রী, সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় ।

৩১/১/১৯,ওয়েবডেস্ক,নিজস্ব সংবাদদাতা : মামার বাড়িতে গিয়ে বামফ্রন্ট জামানার সাফল্য দেখলেন এবং পরোক্ষে স্বীকারও করে নিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এমনটাই ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।
বুধবার রামপুরহাটের সভা সেরে একঝলক কুশুম্বা গ্রামে নিজের মামাবাড়িতে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই তিনি জানান , ” ছোটবেলায় যখন মামার বাড়ি আসতাম তখন রামপুরহাট থেকে আসতে কত সময় লাগত ! রাস্তায় বড় গর্ত ছিল । কি হাল ছিল এই ছফুঁকো জায়গাটার । এখন সব কিছু ভালো হয়েছে । রাস্তাঘাট ভালো হয়েছে , সব কিছু বদলে গেছে , দারুন উন্নত হয়েছে সব।”
মূখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যের সাথে সাথে সুযোগের সৎব্যাবহার করেন বীরভূমের প্রাক্তন সাংসদ রামচন্দ্র ডোম। এই খবর
সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই প্রাক্তন সাংসদ রামচন্দ্র ডোম বলেন, ” ওই গ্রামে পিচের রাস্তা , স্কুল, অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র এসবই বামফ্রন্টের আমলে তৈরি হয়েছে । বাস তো চলেছেই । তৃনমূল আমলে যা হয়েছে তা শুধু চালু রাস্তায় সিমেন্ট ঢালা।”
ডোমের এই মন্তব্যের পর দেরি করেননি সিপিএমের প্রবীন নেতা ও শ্যামল চক্রবর্তী ।

তীব্র কটাক্ষের ভাষায় তিনি তাঁর ওয়ালে লেখেন ” মুখ্যমন্ত্রীকে সাধুবাদ জানাই এই মন্তব্যের জন্য । কারন বাম আমলে কিছুই হয়নি এই অপপ্রচারের মুখে নিজেই ঝামা ঘষে দিয়েছেন । গুগুলের তথ্য অনুযায়ী ১৯৭৭সালে মমতা ব্যানার্জী র বয়স ছিল ২২বছর । তখন নিশ্চই স্কুলে পড়তেননা । স্কুলের পড়া শেষ করেছেন অন্ততঃ ২০ বছর বয়সে স্কুলের পড়া শেষ করেছেন । তখন কংগ্রেস আমল । জলকাদা ছিল কংগ্রেস আমলে । ওই গ্রামে পিচ রাস্তা , স্কুল , অঙ্গনওয়াড়ি সবই হয়েছে বামফ্রন্টের আমলে ।”
শ্যামল চক্রবর্তীর এই মন্তব্যের পরেই বাম কর্মী সমর্থকেরা সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেছে। ঝড়ের গতিতে ফেসবুক, হোয়াটসআপ ইত্যাদি বামপন্থী কর্মী সমর্থকরা ব্যঙ্গ রসিকতায় ভরিয়ে তুলেছে। কেউ কেউ মূখ্যমন্ত্রী কে সত্য কথা স্বীকার করার জন্য ধন্যবাদও জানিয়ে ফেলেছেন।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Most Popular

Recent Comments