কুলিকের বন্যায় ভেসে গেল বৃদ্ধ! দেহ উদ্ধারে নামলো বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর।

জমিতে পাট কাটতে গিয়ে কুলিক নদীর প্লাবিত জলে ভেসে গেল রায়গঞ্জ কর্ণজোড়ার পিরোজপুর গ্রামের বাসিন্দা ভুবন বর্মন। গতকাল কুলিকের তীরে শিয়ালমনি অঞ্চলে এই ঘটনা ঘটে। উদ্ধারে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের উদ্ধারকারীরা চেষ্টা করেও এখনও উদ্ধার করতে পারেনি তার দেহ।

গতকাল দুপুরে রায়গঞ্জ কর্ণজোড়ার কাছে পিরোজপুর গ্রামের বাসিন্দা ষাট বছর বয়স্ক ভুবন বর্মন গ্রামের আরো কিছু মানুষের সাথে কুলিক নদীর পাশে জমিতে পাট কাটতে যায়। ফেরার সময় কুলিক নদীর তীরবর্ত্তী শিয়ালমনির জলমগ্ন রাস্তা ধরে ফেরার পথে আচমকা পা পিছলে কুলিকের প্লাবিত জলে ভেসে যান তিনি আর উঠতে পারে নি। অনেকেরই চোখের সামনে ঘটনা ঘটলেও ঘটনার আকস্মিকতায় কেউ কিছু করতে পারে নি বলে খবর। ঘটনার খবর পেয়ে এলাকার অনেক মানুষ কুলিক বাঁধে ভিড় জমায়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ছুটে আসে। আসেন কমলাবাড়ি-২ অঞ্চলের প্রধান প্রশান্ত দাস। যদিও গতকাল তার দেহ খুঁজে পাওয়া যায় নি। আজ সকাল থেকে তার দেহ উদ্ধারে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের কর্মীরা স্পিড বোট নিয়ে খোঁজ শুরু করলেও শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ভুবন বাবুর দেহ এখনও উদ্ধার হয় নি।

Leave a Reply