ঋণের বোঝা টানতে না পেরে আত্মঘাতী কৃষক, সুইসাইড নোটে আকুতি মোদীর কাছে

ওয়েবডেস্কঃ কৃষি ব্যবস্থার অমূল সংস্কারের কথা বলে ৩টি কৃষি বিল পাস করেছিল নরেন্দ্র মোদী সরকার। কিন্তু এই নিয়ে আন্দোলন শুরু হওয়ায় ওই ৩টি আইনই প্রত্যাহার করে নেয় কেন্দ্র। অন্যদিকে সম্প্রতি মহারাষ্ট্রে শিবসেনার অন্দরে ভাঙন ধরিয়ে ক্ষমতায় এসেছে বিজেপি। শিবসেনার ‘বিদ্রোহী’ নেতা একনাথ শিন্ডের সঙ্গে সরকার গঠন করেছে গেরুয়া শিবির। এই জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রথমবার ঘটল কৃষক আত্মহত্যার ঘটনা। মৃতের নাম দশরথ লক্ষ্মণ কেদারি।

মৃত ওই কৃষকের কাছ থেকে মিলেছে একটি সুইসাইড নোট। যেখানে ছাত্র-ছত্রে লেখা রয়েছে কৃষকদের ওপর ঘটে চলা বঞ্চনার কথা। সেখানে ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য মিলছে না বলে লিখেছেন তিনি। এই পরিস্থিতিতে ঋণ শোধ করার জন্য তাঁকে চাপ দেওয়া হচ্ছিল বলেও সুইসাইড নোটে উল্লেখ করেছেন ওই কৃষক। সুইসাইড নোটে কেদারি প্রশ্ন তুলেছেন, “আমাদের কাছে কোনও টাকা নেই। কিন্তু মহাজনরা আমাদের দিকে হাঁ করে তাকিয়ে রয়েছেন। এই অবস্থায় আমরা কী করব?”

“আমরা পেঁয়াজ বাজারে নিয়ে যেতে পারছি না। মোদী সাহেব, আপনি শুধু নিজের কথাই ভাবেন। অবিলম্বে ফসলের দাম নিশ্চিত করুন। কৃষিকে আপনি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না। একজন কৃষক কী করবে? মহাজনরা হুমকি দিচ্ছেন। সমবায় সমিতিতে গেলে সেখানকার অধিকারিকরা অপমান করেন। কোথায় গেলে বিচার পাব “।

জানা গেছে, রবিবার বাড়ির কাছেই পুকুর থেকে দশরথ লক্ষ্মণ কেদারির দেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দেন। পরে তাঁর ঘর থেকে হাতে লেখা সুইসাইড নোট উদ্ধার করে পুলিশ।

12