ভারতীয় সেনার মুকুটে নয়া পালক! দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি দূরপাল্লার রকেটের সফল পরীক্ষা

ওয়েবডেস্কঃ ভারতীয় সেনার মুকুটে সাফল্যের নয়া পালক যোগ হল। এবার সম্পূর্ণ দেশিয় প্রযুক্তিতে নির্মিত এবং উৎপাদিত পিনাকা রকেট সফলভাবে পরীক্ষা করল ভারতীয় সেনা। এই পিনাকা রকেট দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মিত বর্ধিত রেঞ্জের হলেও সফল হয়েছে পরীক্ষায়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রোজেক্টের আওতায় এটি অন্যতম বড় সাফল্য বলেই মনে করা হচ্ছে।

পিনাকা রকেটের সফল পরীক্ষার ফলে রাশিয়া থেকে আর রকেট আমদানি করার কোনও প্রয়োজনীয়তা থাকবে না। এমনকী বন্ধু দেশগুলিতে ভারত এই রকেট রফতানিও করতে পারবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

পোখরানের মরুভূমিতে সফল পরীক্ষা হল দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি মাল্টি-ব্যারেল রকেট লঞ্চার পিনাকার। ভারতীয় প্রতিরক্ষা গবেষণা এবং উন্নয়ন সংস্থা (‘ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন’ বা ডিআরডিও)-র তরফে জানানো হয়েছে, বুধবার দুপুরে পিনাকার এমকে-১ ‘গাইডেড’ সংস্করণ ভারতীয় সেনার পর্যবেক্ষণে নিখুঁত ভাবে লক্ষ্য চিহ্নিত করে ধ্বংস করতে সফল হয়েছে।

নয়া পিনাকার সফল পরীক্ষার একটি ভিডিয়োও প্রকাশ করেছে ডিআরডিও। কার্গিল যুদ্ধে ব্যবহৃত পিনাকার প্রথম সংস্করণের পাল্পা ছিল ৪০ কিলোমিটার। বর্ধিত পাল্লার পিনাকার ৭৫ কিলোমিটার দূরে লক্ষ্যভেদে সক্ষম। পাশাপাশি অতিরিক্ত বিস্ফোরক বহন এবং ‘লেজার গাইডেড প্রযুক্তি’র সাহায্যে আরও নিখুঁত ভাবে লক্ষ্যভেদে সক্ষম এই রকেট।

কার্গিল যুদ্ধে সফল পিনাকা ৪৪ সেকেন্ডে এক সঙ্গে ৭২টি রকেট ছুড়তে সক্ষম। নয়া মডেলে সেই হার আরও বেড়েছে বলে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রের খবর। এমকে-২ নামে পিনাকার আধুনিকতম সংস্করণ নিয়েই ইতিমধ্যে পরীক্ষা শুরু করেছে ডিআরডিও। এপ্রিল মাসেও সেই পিনাকার সফল পরীক্ষা হয়েছিল।

17