রাহুল গান্ধীর ‘অপদার্থতা’কে দায়ী করে দলত্যাগ বর্ষীয়ান কংগ্রেস সাংসদের

ওয়েবডেস্কঃ

গুলাম নবীর ইস্তফা নিয়ে অস্বস্তির মধ্যেই আজ জরুরি বৈঠকে বসছে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি। সোনিয়া, রাহুল, প্রিয়াঙ্কা, গান্ধী পরিবারের এই তিন সদস্যই এখন দেশের বাইরে। সোনিয়ার চিকিৎসা করাতে গিয়ে লন্ডনে আছেন তাঁরা। তবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তাঁরা যোগ দেবেন এদিনের বৈঠকে। রবিবারের বৈঠকেই দলের সভাপতি নির্বাচনের নির্ঘণ্ট চূড়ান্ত হয়ে যাওয়ার কথা।

কিন্তু, ঠিক তার আগের দিন গুলাম নবি আজাদের পথ ধরেই দল ছাড়লেন আরেক প্রাক্তন সাংসদ। মূলত, রাহুল গান্ধীর ‘অপদার্থতা’কে দায়ী করেই দলত্যাগ করলেন তেলেঙ্গানার বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ এম এ খান।

তাঁর দল ছাড়ার কারণ হিসেবে তিনি বলেন, “দলে সিনিয়রদের যথাযথ সম্মান দেওয়া হচ্ছে না। যেদিন থেকে রাহুল গান্ধী দলের সহ-সভাপতি হয়েছেন, সেদিন থেকে সিনিয়র নেতাদের গুরুত্ব কমে গিয়েছে। আগে কংগ্রেস সভাপতি দলের অন্দরে আলোচনা করে সবরকম সিদ্ধান্ত নিতেন। যেসব সিনিয়র নেতারা দলের জন্য নিজেদের জীবন উৎসর্গ করেছেন, তাঁদের সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হত। কিন্তু রাহুল সভাপতি থাকাকালীন সেটা হয়নি।

আজকের মিটিংয়ে সভাপতি নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঠিক করার পরই রাহুল গান্ধীকে ফের সভাপতি হওয়ার জন্য অনুরোধ করার কথা গান্ধী পরিবার ঘনিষ্ঠদের। জানা গেছে,অশোক গেহলটকেই সভাপতি পদের প্রার্থী হিসাবে বেছে নেওয়া হতে পারে। অন্যদিকে, গেহলট আবার শর্ত দিয়েছেন, তিনি দলের সভাপতি হলে শচীন পাইলটকে মুখ্যমন্ত্রী করা যাবে না।

বর্তমানের এই পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে আদতে কি হতে চলেছে তা এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা।

20