পুজোর আগেই ভারতে ৫জি, প্রথম ধাপে কলকাতা! প্রস্তুতির নির্দেশ টেলিকম মন্ত্রীর

ওয়েবডেস্কঃ আর কিছুদিনের অপেক্ষা, তারপরই দেশে শুরু হবে ৫জি পরিষেবা। স্প্রেকট্রামের নিলাম শেষ হতেই এবার টেলিকম সংস্থাগুলিকে পরিষেবা শুরুর জন্য প্রস্তুতি থাকতে বললেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বীনী বৈষ্ণব। এদিন তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী জানান, স্প্রেকট্রাম অ্যাসাইনমেন্টের চিঠি ইস্যু করা হয়েছে। শীঘ্রই পরিষেবা চালু করার জন্য যেন টেলিকম সংস্থাগুলি প্রস্তুত থাকে।

গত জুলাই মাসেই নিলাম শেষ হয় ৫জি স্প্রেকট্রামের। সবথেকে বেশি ফ্রিকোয়েন্সি ব্যান্ড কিনেছে মুকেশ অম্বানীর রিয়ালেন্স জিও সংস্থাই। টেলিকম বিভাগ জানিয়েছে, প্রথম ধাপে, সেপ্টেম্বরেই ভারতের ১৩টি শহরে মিলবে হাই স্পিড ৫জি ইন্টারনেট পরিষেবা।

জানা গিয়েছে, প্রথম ধাপে কলকাতা, আমদাবাদ, বেঙ্গালুরু, চণ্ডীগড়, চেন্নাই, দিল্লি, গাঁধীনগর, গুরুগ্রাম, হায়দরাবাদ, জামনগর, লখনউ, মুম্বই, পুণেতে মিলবে ৫জি পরিষেবা। নিলামের মাধ্যমে স্পেকট্রাম বণ্টন করেছে ডিওটি। আর সেই বাবদ ভারতী এয়ারটেল, রিলায়্যান্স জিয়ো, আদানি ডেটা নেটওয়ার্ক, ভোডাফোন-আইডিয়া সংস্থার কাছ থেকে ইতিমধ্যে ১৭ হাজার ৮৭৬ কোটি টাকা পেয়েছে তারা।

৫জি নেটওয়ার্ক শুরু হলে নানা ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসবে। কারণ খুব অল্প সময়ে অনেক বেশি পরিমাণ তথ্য সরবরাহ করা যাবে এই নেটওয়ার্কের মাধ্যমে। প্রসঙ্গত, এখন ভারতে যে নেটওয়ার্ক চলছে, তার থেকে অন্তত দশ গুণ দ্রুত কাজ করবে ৫জি।

যদিও এই হাই স্পিড তথ্য প্রযুক্তির যুগে 5জি র পদার্পণে পরিবেশ অনেকটাই ক্ষতির সম্মুখীন হবে বলে মনে করছেন অনেকে।

23