আম্বানি কে টেক্কা দিতে কোটি কোটি ঋণ আদানির! অস্থিরতা ক্রেডিটসাইটে

ওয়েবডেস্কঃ আশির দশকে হীরা কেনাবেচার জন্য ‘দালালি সংস্থা’ খোলার পর, পণ্য লেনদেনের ব্যবসা দিয়ে শিল্প জগতে প্রবেশ করেন গৌতম আদানি। তারপর, খনি, বন্দর, বিদ্যুৎ এবং উড়ান ব্যবসায় বিনিয়োগ করেন তিনি। সম্প্রতি তামা শোধন, পেট্রোকেমিক্যালস, অ্যালুমিনিয়াম উৎপাদন ব্যবসায় পুঁজি ঢেলেছে তাঁর সংস্থা। আর বেশি লাভের আশায় মুকেশ আম্বানীর সঙ্গে প্রতিযোগিতা শুরু করেছেন গৌতম আদানি। মিডিয়া ক্ষেত্রেও নতুন করে বিনিয়োগ করতে চলেছে আদানি গ্রুপ। যা নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

ক্রেডিটসাইটস একটি প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এগুলির মধ্যে এমনও ব্যবসা রয়েছে, যেগুলি প্রবল ভাবে পুঁজি নির্ভর এবং শুরু থেকেই আয়ের দরজা খুলবে না। আগামী কয়েক বছর ঢেলে যেতে হবে পুঁজি। আর তার জন্য নির্ভর করতে হবে ব্যাঙ্ক এবং শেয়ার বাজারের উপর। আর এর ফলে ঋণের চাপ আরও বাড়বে।পাশাপাশি, ‘ব্যবসা বাড়ানোর জন্য অতিরিক্ত ঋণ নির্ভরতা বড় ঋণের ফাঁদ তৈরি করতে পারে। আর সত্যিই তা হলে, গোষ্ঠীর এক বা একাধিক সংস্থার রুগ্‌ণ হওয়া বা দেউলিয়া হয়ে পড়ার আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না।’ বলেও জানিয়েছে ক্রেডিটসাইটস।

উল্লেখ্য, গত দুই বছরে আদানি গোষ্ঠীর ঋণের পরিমাণ বিপুল পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০২১-২২ আর্থিক বছরের শেষে আদানি গ্রুপের ছয়টি তালিকাভুক্ত সংস্থার মোট ঋণ দাঁড়িয়েছে ২.৩০ লক্ষ কোটি টাকা। গত বছর এই ঋণের পরিমাণ ছিল ১.৫৭ লক্ষ কোটি টাকা।

16