বড় ঘোষণা নির্বাচন কমিশনের, আধার জমা না দিলেও ভোটার তালিকাতেই থাকছে নাম

ওয়েবডেস্কঃ

এই বছরের ৪ জুলাই নির্বাচন কমিশনের তরফে প্রতিটি রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকদের ভোটার-আধার সংযুক্তিকরণের বিষয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছিল। চিঠিতো বলা হয়,”সংবিধানের ২৩ নম্বর ধারায় স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়েছে, ভোটারদের থেকে তাঁদের আধার কার্ড সংগ্রহ করার উদ্দেশ্য হল ভোটারদের পরিচয় প্রতিষ্ঠা করা। এর পাশাপাশি ভোটার তালিকায় তাঁদের নাম নথিভুক্ত করানো এবং একই ব্যক্তির একাধিক নির্বাচনী এলাকার ভোটার তালিকায় নাম আছে কিনা তা চিহ্নিত করা। তাই এই কাজটির উদ্দেশ্য সংবিধানের নিয়ম বহির্ভূত নয়। এটা স্পষ্টভাবেই জানানো হয়েছে, আধার জমা নেওয়ার কাজটি স্বেচ্ছার ভিত্তিতেই করতে হবে।”

কিন্তু, সোমবার, নির্বাচন কমিশন এক ট্যুইট বার্তায় জানিয়েছে, কোনও ব্যক্তির যদি আধার কার্ড জমা না দেওয়া থাকে, সেক্ষেত্রে তাঁর নাম কোনওভাবেই ভোটার তালিকা থেকে মুছে ফেলা উচিত নয়।

নির্বাচন কমিশনের এই ঘোষণার পরেই এক ট্যুইট বার্তায় সিপিআইএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি বলেন, “নির্বাচন কমিশনকে অবশ্যই সিইওদের নির্দেশ দিতে হবে এবং অবিলম্বে স্থানীয় কর্তৃপক্ষের দ্বারা ভোটার আইডির সাথে আধারের বাধ্যতামূলক লিঙ্ক করার জন্য বর্তমান অবৈধ ডোর-টু-ডোর ভিজিট বন্ধ করার আদেশ জারি করতে হবে।”

30