মিছিল শেষে শুরু হলো নির্মান কর্মীদের অষ্টম জেলা সন্মেলন

ওয়েবডেস্কঃ

কোটি কোটি ঘরে দারিন্দ্র, অনাহার, অর্থের অভাবে মা তাঁর সন্তান কে বিক্রি করেন।স্বাধীনতার ৭৫ বছরে এই স্বাধীন দেশের মানুষ হিসেবে বেঁচে থাকার অদম্য জেদ নির্মান শ্রমিকদের। দিন খাটলে ২৬০ টাকা মজুরি তে চাল ১ কেজি ৪০/৪৫ টাকা ২৫ টাকায় ১০০ গ্রাম তেল। সারাদিনের হাড়ভাংগা খাটুনিতে গায়ে গতড়ে ব্যাথা হলে ঔষধ কেনার সামর্থ টুকুন নেই।  কাজের অভাবে আত্মহত্যা নিত্যদিনের ঘটনা।

এর থেকে পরিত্রানের একমাত্র পথ গণআন্দোলন। নির্মান শ্রমিকদের অষ্টম জেলা সম্মেলন উদ্বোধন করে উদ্বেগের সাথে কথা গুলো বলেন সারাভারত নির্মান কর্মী ইউনিয়নের সর্বভারতীয় নেতা দেবাঞ্জন চক্রবর্তী।  অস্বাভাবিক গরম আর রোদকে উপেক্ষা করেও রবিবার রায়গঞ্জ শহরে সম্মেলনের আগে নির্মাণ শ্রমিক কর্মীদের মিছিল হয়। প্রয়াত নেতা সুশান্ত দাস নগর এবং শেখর কালাম মিস্ত্রি, চাঁদ মহম্মদ, বিমল বর্মন নামাঙ্কিত মঞ্চে রায়গঞ্জ ছন্দম মঞ্চে সম্মেলনে খসড়া প্রতিবেদন পেশ করে বক্তব্য রাখেন বিপ্লব সেনগুপ্ত।

জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে ২৭০ জন প্রতিনিধি সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন। ব্লক ভিত্তিক গৃহ নির্মানের মজুরি বৃদ্ধির দাবী, সমকাজে সমমজুরির দাবী,  ই-শ্রম পোর্টালে নাম নথিভুক্ত করণ, তিস্তা প্রকল্পের কাজ পুনরায় চালু করা, শ্রমিক স্বার্থ বিরোধী শ্রমকোড প্রত্যাহার, নির্মাণ শ্রমিকদের সামাজিক সুরক্ষা সুনিশ্চিত  করার দাবী, এবং নির্মাণ শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি ৮০০ টাকার দাবীতে সম্মেলনের ১৪ জন প্রতিনিধি আলোচনায় অংশ নেন। সম্মেলন কে অভিনন্দন জানিয়ে বক্তব্য রাখেন সি আই টি ইউ জেলা সভাপতি পরিতোষ দেবনাথ, ১২ ই জুলাই কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক নির্মল বোষ এবং নির্মান শ্রমিক ইউনিয়নের রবী বর্মন। 

৫১ জনকে নিয়ে নিয়ে নতুন জেলা কমিটি গঠিত হয়েছে। ১৮ জনের জেলা সম্পাদকমণ্ডলী গঠিত হয়েছে। সম্মেলন থেকে স্বপন গুহ নিয়োগী সভাপতি এবং বিপ্লব সেনগুপ্ত জেলা সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। 

স্বপন গুহ নিয়োগী, দিলীপ নায়ারন ঘোষ, কালিপদ অধিকারি এবং মনোরঞ্জন পাটোয়ারী কে নিয়ে গঠিত সভাপতিমণ্ডলী সম্মেলনের কাজ পরিচালনা করেন। 


20