লাঠি দিয়ে পিটিয়ে, শ্বাসরোধ করে স্ত্রীকে খুন পুলিশকর্মীর

ওয়েবডেস্কঃ

লাঠি দিয়ে পিটিয়ে এবং শ্বাসরোধ করে স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ উঠলো পুলিশ কর্মী স্বামীর বিরুদ্ধে।শুক্রবার সকালে চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মালদা থানার শনিবাথান এলাকায়।

ঐ পুলিশকর্মী স্ত্রীকে খুন করার পর বাড়ি থেকে সামান্য দূরে একটি বাগানের মধ্যে গাছে শাড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে দেন বলে অভিযোগ। বিষয়টি জানাজানি হতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন গ্রামবাসীরা। গণরোষের হাত থেকে বাঁচতে সংশ্লিষ্ট থানায় আত্মসমর্পণ করেন অভিযুক্ত।
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত গৃহবধূর নাম মাম্পি মন্ডল (২৫)। তার বাবার বাড়ি পুরাতন মালদা থানার পোপরা এলাকায়। গত সাত বছর আগে শনিবাথান এলাকার বাসিন্দা পেশায় পুলিশ কর্মী। জয়ন্ত মন্ডলের সঙ্গে বিয়ে হয় মাম্পির। তাদের চার এবং এক বছরের দুই নাবালক পুত্র সন্তান রয়েছে। গৃহবধূর এক দিদি রিঙ্কি মন্ডল পুলিশকে অভিযোগে জানিয়েছেন, যে লাঠি নিয়ে জামাই জয়ন্ত মন্ডল ডিউটি করতো। সেই লাঠি দিয়েই বাড়িতে এসে তার বোনকে প্রতিনিয়ত মারধর করে অত্যাচার চালাতো। জামাই আমার বোনকে বাজে সন্দেহ করতো। এনিয়ে বোন মাম্পি মন্ডলকে পিটিয়ে খুন করার পর বাড়ি থেকে সামান্য দূরে আম গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়।

মালদা থানার পুলিশ জানিয়েছে, মৃত গৃহবধুর পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে । জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে অভিযুক্তকে।

14