পাহাড় থেকে সমতল,বৃষ্টির সম্ভাবনা উত্তরে,অস্বস্তি দক্ষিণ

গত মাসের তীব্র দাবদাহ এখনো পর্যন্ত ভুলতে পারেনি বঙ্গবাসী। আর সেই তীব্র গরম থেকে অনেকটা স্বস্তি দিয়ে বৃষ্টির স্বাদ পেয়েছেন সাধারণ মানুষ। তবে এখানেই শেষ নয়। পাহাড় থেকে সমতল পর্যন্ত প্রবল বর্ষণের পূর্বাভাস জারি করল আবহাওয়া দপ্তর।

ইতিমধ্যেই রবিবার সকাল থেকেই গোটা উত্তরবঙ্গেই বৃষ্টি হয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টাও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এমনটাই জানাল আবহাওয়া দপ্তর। দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার ও উত্তর দিনাজপুর জেলার বেশ কিছু অংশে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। দক্ষিণ দিনাজপুর এবং মালদায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হবে।

উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির কারণে দার্জিলিং এবং কালিম্পং-এর মতো জেলাগুলির পাহাড়ি এলাকায় ধস নামার সম্ভাবনা রয়েছে বলে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

নদীগুলিতে জল বাড়বে। উত্তরবঙ্গের কোচবিহার, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ারের নীচু এলাকা প্লাবিত হতে পারে। ফলে ওই সমস্ত এলাকাগুলিতে সতর্ক থাকতে হবে বলে জানানো হয়েছে।পাশাপাশি তাপমাত্রা ও আর্দ্রতা আপাতত অস্বস্তির মাত্রা ছাড়াবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। টানা বৃষ্টি হতে থাকায় স্বস্তি থাকবে উত্তরবঙ্গ জুড়ে। মালদা ও দক্ষিণ দিনাজপুরে জেলায় তাপমাত্রা সামান্য বেশি থাকবে।

এদিকে, গুমোট অস্বস্তিকর গরম থেকে রেহাই পাচ্ছেন না দক্ষিণবঙ্গবাসী। আগামী ৪৮ ঘণ্টা দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির কোনও পূর্বাভাস নেই বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। বুধবার বিকেলের মধ্যে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হতে পারে পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া জেলার বেশ কিছু অংশে। হালকা বৃষ্টি হতে পারে পুরুলিয়া, বাঁকুড়াতেও। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় তাপমাত্রার কোনও হেরফের হবে না দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে।

16