পার্থ-অর্পিতার নামে যৌথ সম্পত্তি, দাবি ইডির। সম্পত্তি মানেই সম্পর্ক নয়, পাল্টা দাবি!

ওয়েবডেস্কঃ

রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগের মামলায় ধৃত পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায় দু’জনের নামে বহু যৌথ সম্পত্তি রয়েছে। সোমবার কলকাতার বিশেষ আদালতে শুনানি চলাকালীন এমনই দাবি করেন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট-এর আইনজীবী।

দশ বছর ধরে সম্পর্ক পার্থ চট্টোপাধ্যায়-অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের!এমনই দাবি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের। যদিও ইডির এই যুক্তি মানতে চাননি পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী। তাঁর বক্তব্য, অর্পিতার বাড়়ি থেকে টাকা উদ্ধার হয়েছে ঠিকই। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, অর্পিতার সঙ্গে পার্থের যোগ রয়েছে।

কেন্দ্রীয় সংস্থার পক্ষে আইনজীবী তথা কেন্দ্রের অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল এসভি রাজু বলেন, ‘‘পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের নামে অনেক যৌথ সম্পত্তির হদিস মিলেছে। আমাদের মনে হয়, তাঁদের মধ্যে নিশ্চয়ই এমন কোনও সম্পর্ক রয়েছে, যার জন্য তাঁরা একসঙ্গে সম্পত্তি কিনেছেন।’’

অন্যদিকে, পার্থের আইনজীবী দেবাশিস রায় বলেন, ‘‘আমি মেনে নিচ্ছি, উনি (অর্পিতা) আমার মক্কেলের পরিচিত। কিন্তু আমার মক্কেলের জুনিয়রের বাড়িতে টাকা উদ্ধার হলে তার সঙ্গে আমাদের মক্কেল যুক্ত, তা কী করে প্রমাণ হয়!’’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, পার্থ এবং অর্পিতাকে সোমবার আদালতে পেশ করে ১০ দিনের হেফাজতে নিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তাকরী সংস্থা। সোমবার অসুস্থ মন্ত্রীকে ভুবনেশ্বরের এইমসে একাধিক শারীরিক পরীক্ষার পর চিকিৎসকরা জানান, হাসপাতালে ভরতি হওয়ার মতো কোনও সমস্যা নেই পার্থবাবুর। ওষুধ খেলেই তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন। এরপরই মঙ্গলবার সকাল ৫.৪০এর বিমানে পার্থবাবুকে আনা হয় কলকাতায়। দমদম বিমানবন্দর থেকেই তাঁকে সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে, ইডি দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

9