সরকারি প্রকল্পে দুর্নীতি বন্ধের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ চাঁচল গ্রাম পঞ্চায়েতে

সরকারি প্রকল্পে দুর্নীতি বন্ধ,সুষ্ঠু জল নিকাশি ব্যবস্থা,এলাকা পরিস্কার রাখার জন্য ডাষ্টবিন,পুকুরের গার্ডওয়াল নির্মাণ ও এম.জি.এন.আর.ই.জি.এস প্রকল্পে ১০০ দিনের পরিবর্তে ২০০ দিন সমেত বকেয়া মজুরী প্রদান সহ মোট ২২ দফা দাবিতে স্মারকলিপি জমা দিলেন ক্ষেতমজুর সংগঠন।

সোমবার চাঁচল গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের হাতে দাবিগুলির স্মারকলিপি তুলে দেওয়া হয় এই বামপন্থী সংগঠনের তরফ থেকে। এছাড়া পঞ্চায়েত দপ্তরে সামনে ঘন্টা খানেক ধরে পথসভা করা।পরে চাঁচল নেতাজি মোড় হয়ে মিছিল করে পঞ্চায়েত দপ্তরের সামনে বিক্ষোভ দেখানো হয়।

অভিযোগ,১০০ দিনের কাজে লাগামহীন দুর্নীতি করেই চলছে তৃণমূল পরিচালিত চাঁচল গ্রাম পঞ্চায়েত।এমনকি আবাস যোজনর উপভোক্তা দের কাছ থেকে কাটমানি নিচ্ছে শাসকদলের পঞ্চায়েত সদস্যরা।সেই সব দুর্নীতি বন্ধ করতে বামেদের এক কর্মসূচি বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।তবে দুর্নীতির অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন চাঁচল গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান আজমেরী খাতুন। বামেদের এদিনের কর্মসূচীতে নেতৃত্ব উপস্থিত ছিলেন চাঁচল এরিয়া কমিটির সদস্য অনিমেষ বসাক,হারুন অল রশিদ ও মনোয়ারুল আলম সহ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

23