বহু পুরষ্কার পেয়েছেন, এবার অন্য কাউকে দেওয়া হোক, বঙ্গবিভূষণ প্রত্যাখ্যান ডঃ অমর্ত্য সেনের

ওয়েবডেস্কঃ

অবশেষে সত্যি হল জল্পনা৷ পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের দেওয়া বঙ্গবিভূষণ পুরস্কার নিচ্ছেন না নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। “তিনি বহু পুরস্কার পেয়েছেন। এ বার তাঁর পরিবর্তে নতুন কাউকে এই সম্মান দেওয়া হোক।”অমর্ত্য সেন তাঁর পরিবারের মাধ্যমে এমনটাই জানিয়েছেন সরকারকে।

বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই জলঘোলা হয়েছে রাজ্য জুড়ে। অনেকেই দাবি করছেন রাজ্যের দেওয়া বঙ্গবিভূষণ সম্মান প্রত্যাখ্যান করেছেন অমর্ত্য সেন।আবার অনেকেই এর জন্য সিপিআইএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর আবেদনকে কারণ হিসেবে মনে করছেন। যদিও অমর্ত্য সেনের পরিবারের তরফে এর এই দাবির বিরোধিতা করা হয়েছে।

সোমবার বিকেলে নজরুল মঞ্চে বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্টদের হাতে বঙ্গবিভূষণ ও বঙ্গভূষণ পুরস্কার তুলে দেবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বঙ্গবিভূষণ প্রাপকের তালিকায় নাম রাখা হয়েছিল নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের। রবিবার বিকেলেই তিনি জানিয়ে দিয়েছিলেন বিদেশে থাকার কারণে এই সম্মান গ্রহন করতে পারবেন না। তাই এই সম্মান বরং দেওয়া হোক নতুন কাওকে।

উল্ল্যেখ, স্কুল সার্ভিস কমিশনে নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগে রাজ্যের শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির আর্থিক দুর্নীতি সংক্রান্ত তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। তার গ্রেপ্তারের পরই অমর্ত্য সেন এবং অভিজিৎ বিনায়কদের বঙ্গবিভূষণ সম্মান বয়কটের আহ্বান জানিয়ে চিঠি দেন সিপিআইএমের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজন চক্রবর্তী। ওই চিঠির পর সম্মান নিতে অনীহা প্রকাশ করা ওই ঘটনারই প্রভাব বলে মনে করা হচ্ছে।

বঙ্গবিভূষণ ও বঙ্গভূষণ সম্মানের পাশাপাশি চলচ্চিত্রে বিশেষ অবদানের জন্য বিশিষ্ট শিল্পীদের হাতে তুলে দেওয়া হবে ‘মহানায়ক সম্মান’-ও। খেলাধূলায় বিশেষ অবদানের জন্য এবছর মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল ও মহামেডান এই তিন ক্লাবও পেতে চলেছে রাজ্য সরকারের সর্বোচ্চ সম্মান বঙ্গবিভূষন।

16