নাবালিকাদের দিয়ে দেহব্যবসা! পুলিশের জালে মেঘালয়ের বিজেপি নেতা, উদ্ধার প্রচুর গর্ভনিরোধক

ওয়েবডেস্কঃ

ফের প্রকাশ্যে বিজেপি নেতার কেচ্ছা। এবার গোটা একটি যৌনপল্লীই চালাচ্ছে একজন বিজেপি নেতা। মেঘলায়ের BJP দলের সহ-সভাপতি বার্নাড এন মারাক লালএর বিরুদ্ধে উঠেছে এই মারাত্মক অভিযোগ।

নিজের খামার বাড়িটিকে কার্যত পতিতালয় বানিয়ে রেখেছিলেন এই প্রভাবশালী বিজেপি নেতা। টুরা এলাকার ওই পতিতালয় থেকে ইতিমধ্যেই ছয় জন নাবালিকাকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন West Garo Hills এলাকার পুলিশ সুপার বিবেকানন্দ সিং। সম্প্রতি গারো পাহাড়ের ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে টুরায় ওই যৌনপল্লী থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে ৭৩ জনকে। ওই বাড়ি থেকে একাধিক গর্ভনিরোধক ওষুধও উদ্ধার হয়েছে বলে খবর। বিভিন্ন ঘরে তালাবন্দি একাধিক শিশুকেও উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মারাক এক সময়ে জঙ্গি সংগঠনের সদস্য ছিলেন, পরে তিনি যোগ দেন রাজনীতিতে। ঘটনাচক্রে BJP-র সহসভাপতি হন তিনি।ওই এলাকার পুলিশ সুপার জানান , মারাকের একটি ফার্ম হাউস আছে। রিম্পু বাগান নামের ওই খামার বাড়িতেই চলত ওই যৌনপল্লী।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি একটি অভিযোগ জমা পড়ে। এক ব্যক্তি জানান, এক সপ্তাহ নিরুদ্দেশ ছিল তাঁর নাবালিকা কন্যা। সম্প্রতি এক আত্মীয় সন্দেহভাজন এক ব্যক্তির সঙ্গে নাবালিকাকে দেখেন। এরপরেই ওই সন্দেহভাজনকে আটকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। এরপর নাবালিকার বয়ান রেকর্ড করে পুলিশ। ২২ জুলাই শুক্রবার রাতে রাজ্য বিজেপি সহ-সভাপতি বার্নার্ড ম্যারাকের খামার বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ।

23