৭২ ঘন্টা জেরার পর গ্রেফতার পার্থ চট্টোপাধ্যায়

ওয়েবডেস্কঃ

অবশেষে গ্রেপ্তার হলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সুদীর্ঘ ৭২ ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর কিছুক্ষণ আগে গ্রেফতার করা হয় প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীকে। জানা গেছে যে কিছুক্ষণ আগে তাকে নাকতলার বাড়ি থেকে বের করে সিজিও কমপ্লেক্সে নিয়ে রওনা দিয়েছেন ইডি আধিকারিকেরা। ইতিমধ্যে দিল্লি থেকে সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে পৌঁছে গেছেন ইডির দুই শীর্ষ অধিকর্তা।

সিজিও কমপ্লেক্সে মোতায়েন করা হয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী।শুক্রবার সকাল থেকে রাতভর জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় রাজ্যের শিল্পমন্ত্রীকে। সূত্রের খবর, গ্রেপ্তারির পর প্রথমে শারীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষা হবে মন্ত্রীর। এরপর সিজিও কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হবে তাঁকে। সেখানে ফের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে পার্থবাবুকে। প্রায় ২৭ ঘণ্টা জেরার পর সকাল ১০টা নাগাদ অ্যারেস্ট মেমোয় সই করানো হয় তাঁকে। শনিবারই আদালতে তোলা হবে মন্ত্রীকে। এদিকে, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ‘ঘনিষ্ঠ’ অর্পিতাকে আটক করেছে ইডি।

পার্থ ‘ঘনিষ্ঠ’ অর্পিতার টালিগঞ্জের ফ্ল্যাট থেকে এখনও পর্যন্ত ২১ কোটি টাকা পেয়েছেন তদন্তকারীরা। বাজেয়াপ্ত ৫০ লক্ষ টাকার সোনার গয়না, জমির দলিল ও প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা। নাকতলা উদয়ন সংঘের পুজোর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর অর্পিতার আয়ের উৎস নিয়ে ধন্দে তদন্তকারীরা।

জানা গেছে, টালিগঞ্জের অভিজাত আবাসনের একটি বন্ধ ঘর এবং বন্ধ ওয়ার্ড্রোব থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। রাতভর জেরায় একাধিকবার বয়ান বদল করেছেন আঠাশ বছর বয়সি অর্পিতা। বিপুল পরিমাণ টাকার উৎস সম্পর্কে সুস্পষ্টভাবে নাকি কিছু বলতেই পারছেন না তিনি। হাতে গোনা কয়েকটি বাংলা ছবিতে সহ অভিনেত্রী হিসাবে কাজ করেছেন অর্পিতা। বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রেও একইরকম। যদিও বেশ কিছু ওড়িয়া ছবিতেও কাজ করেছেন তিনি। শহরের বিভিন্ন প্রান্তে কয়েকটি নেল পার্লার ছিল অর্পিতার। তবে প্রশ্ন উঠছে, অভিনয় এবং ব্যবসা করে এত অল্প বয়সে ২১ কোটি টাকা রোজগার করা সম্ভব? নিয়োগ দুর্নীতির সঙ্গে উদ্ধার হওয়া কোটি কোটি টাকার কিছু না কিছু যোগসূত্র রয়েছে বলেই মনে করছেন ইডি আধিকারিকরাও।

এই প্রসঙ্গে বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “নথি, মোবাইল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। তার মাধ্যমে আরও নানা তথ্য সামনে আসবে।”

33