ছাত্রীকে শাসন করার অপরাধে দুস্কৃতীরা স্কুলের কমনরুমে ঢুকে শাড়ি টেনে খুললো শিক্ষিকার!

ওয়েবডেস্কঃ

শিক্ষিকা শাসন করেছিলেন ছাত্রীকে। অপরাধ ছিল সেটাই দুষ্কৃতী নজরে।আর সেজন্যই স্কুলের কমন রুমে প্রবেশ করে শিক্ষিকার শাড়ি খুলে নিল দুষ্কৃতীরা। আজ দুপুরে চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের ত্রিমোহিনী প্রতাপচন্দ্র উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়ে। ঘটনার নিন্দায় সরব সবমহল।

সূত্রের খবর, শুক্রবার দুপুরে এক ছাত্রীকে শাসনের অভিযোগ তুলে প্রথমে ত্রিমোহিনী প্রতাপ চন্দ্র উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায় একদল দুষ্কৃতী। সেই সময় শিক্ষকদের কমন রুমে ঢুকে পড়ে দুস্কৃতীরা। এরপরেই ঘটে ঘটে নক্কার জনক ঘটনা। সে সময় কমন রুমে থাকা ঐ শিক্ষিকার শাড়ি টেনে খুলে দেওয়ার পাশাপাশি শারীরিক হেনস্তা করা হয় তাকে।

অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজও চলে।এই ঘটনার খবর পেয়েই, স্কুলে ছুটে যায় বিশাল পুলিস বাহিনী। এরপর পুলিস বিক্ষোভকারীদের ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে দেয়।ঘটনাস্থলে যান জয়েন্ট বিডিও এবং স্কুল পরিদর্শক। স্কুল শিক্ষকদের ব্লক প্রশাসনের তরফে নিরাপত্তার আশ্বাস দেওয়া হয়।ঘটনায় রীতিমতো নিন্দার ঝড় সবমহলে।

স্কুলে ঘটে যাওয়া ঘটনা প্রসঙ্গে স্কুলের প্রধান শিক্ষক কমলকুমার জৈন বলেন, “আলোচনা চলছিল। তখনই জনতা উত্তেজিত হয়ে যায়, শিক্ষিকার সঙ্গে যা করা হয়, তা কাম্য ছিল না। প্রশাসনের মধ্যস্থতায় বিষয়টি মিটমাট হয়ে গিয়েছে।”

অন্যদিকে দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের করে শাস্তির দাবি জানিয়েছে স্কুলে প্রাক্তনিরা।

32