কুলিক রোববার কবিতা: ঋতু

স্বর্ণা দাস

জন্মদাগ জরুৎকার মৃত্যুকায় রক্তস্রোত
ভস্ম হোক রাত্রিদিন খুলছে প্রাক খর্বকায়
রুগ্ন প্রায় হে আচার্য, মহুল দলে বন আকড়
বাল্মীক ওই শ্যাওলাতল বদ্ধ তার নেশার প্রাত
চিহ্নটুকু আবার প্রণীত অলক্ষেরই রক্ষ হয়
দাওয়াতময় নগ্ন হল নিষেধ রোধ দোসর তার
এখন খুব পাচ্ছে কাদা ভর্তি চোখ বেজন্মায়
ভাবলে ডানা রোদের রঙ অহংবোধ ফরএভার
তোমার কথায় তোমার দিঘি কেতকীময় ঠোঁটের কেমন
আকাশ একা ওরঙ্গজেব ফ্যালফ্যালে তার মস্ত সারস
সম্রাটেরের সন্ধ্যেমনি ওঠানামা কয়েকটা তীর
দাঁড়িয়ে ঠাঁস চাহিদারা সহস্রকায় আধোপুরুশ
ভঙ্গিতে যাস বারংবার কেমন দেশে উড়ছে ঘেনা
ইরার মুঠোর গর্ভ তোমার মন্ত্রনাদ্বয় ম্যাপের রোয়া
কলমগুলো ছিন্ন করো গুলঞ্চতার নজর কারা
ভাঙছি ভাঙো মাখতাম গায়ে প্যাঁচানো এক ক্যানভাসে
কচ্ছপেরি আলফামেঘে বিমর্ষতার অজুহাতে

12