কৃষক সভার সম্মেলন ঘিরে চূড়ান্ত উন্মাদনা উত্তর দিনাজপুরের তরঙ্গপুরে

ওয়েবডেস্কঃ

প্রান্তিক জেলা উত্তর দিনাজপুর জেলায় অধিকাংশ মানুষেরই মূল জীবিকা কৃষিকাজ নির্ভর। সেই কৃষিকাজ এবং তার জন্য ব্যবহৃত সরঞ্জাম থেকে সার, বীজ কীটনাশক ইত্যাদির দাম বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। অথচ আশ্চর্যের ব্যাপার কৃষক কিন্তু তাঁর উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য দাম পাচ্ছেন না। এর ফলে কৃষিনির্ভর মানুষগুলোর জীবনযন্ত্রনা প্রতিদিনই বাড়ছে বৈ কমছে না। কেন্দ্র ও রাজ্য দুই সরকার কৃষকের বিরুদ্ধে এক প্রকার যুদ্ধ ঘোষণা করছে।

আর এই প্রেক্ষিতে দাঁড়িয়েই আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনে কৃষক ন্যায্য অধিকারের দাবীতে বুথের মধ্যেই বুক চিতিয়ে লড়াই এর ময়দানে থাকার বার্তা জানিয়ে আজ প্রকাশ্য জনসভার মধ্য দিয়ে জেলা সম্মেলনের সূচনা করলো সারা ভারত কৃষাণ সভার উত্তর দিনাজপুর জেলা। সম্মেলন মঞ্চ থেকে এই দৃঢ় বার্তা ঘোষিত হলো যে জেলার ১৫৮০ বুথেই গড়ে তুলতে হবে শক্তিশালী বুধ কমিটি। রবিবার থেকে দুদিন সারা ভারত কৃষক সভার ২৪ তম জেলা সম্মেলন হবে তরঙ্গপুর গ্রামে।


ফসলের লাভজনক দামের নিশ্চয়তা আইন বেকারের কাজ, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি রোধ গণতন্ত্রের অধিকার সম্প্রীতির পরিবেশ নিয়ে দুদিন ব্যাপী হবে জেলা সম্মেলন জানালেন সারাভারত কৃষক সভার জেলা সম্পাদক সুরজিৎ কর্মকার।
পশ্চিমবঙ্গ প্রাদেশিক কৃষকসভার ২৪ তম উত্তরদিনাজপুর জেলা সম্মেলনের আগে তরঙ্গপুর ফুটবল মাঠে অনুষ্ঠিত হলো প্রকাশ্য জনসভা। মহম্মদ সেলিম ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অমল হালদার, বিপ্লব মজুমদার, আনোয়ারুল হক। সভায় সভাপতিত্ব করলেন সংগঠনের জেলা সভাপতি পরিতোষ রায়। জনসভাকে ঘিরে তিন দিন ছিলো কালিয়াগঞ্জের তরঙ্গপুর গ্রামে চুড়ান্ত প্রস্তুতি। তীব্র গরম উপেক্ষা করেই সভায় প্রচুর মানুষের উপস্থিতি ছিলো নজরকাড়া।


সংগঠনের জেলা সম্পাদক সুরজিত কর্মকার আরো জানান, তেভাগা আন্দোলনের ৭৫ বর্ষ পুর্তিতে দিনাজপুর জেলার তেভাগা আন্দোলনের লড়াকু সৈনিকদের মধ্যে আজও বেঁচে আছেন মিত্র মোহন দেবশর্মা, সইফুদ্দিন আহম্মেদ ওরফে ভেলুয়াদা। তাঁদের কেও সম্মেলন মঞ্চে সংবর্ধনা দেওয়া হবে।
হবিবুর রহমান, রবীন্দ্রনাথ পুততুণ্ড, মহমুদ্দিন, বাদল বিশ্বাস মঞ্চে প্রতিনিধি সম্মেলন হবে।

জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ২৯৫ জন প্রতিনিধি সম্মেলনে অংশ নেবেন।

26