টাকার দাম নেই, সোনার মুদ্রা চালু করছে জিম্বাবোয়ে!

ওয়েবডেস্কঃ

প্রতিদিনের লেনদেন চলবে সোনার মুদ্রায়? তবে কি একবিংশ শতকে ফিরে আসছে প্রাচীন যুগের প্রথা? বাড়তে থাকা মুদ্রাস্ফীতির ধাক্কায় ক্রমেই মুখ থুবড়ে পড়ছে দেশের অর্থনীতি। এই অবস্থায় ঘুরে দাঁড়াতে সোনার কয়েন বিক্রির সিদ্ধান্ত নিল জিম্বাবুয়ের কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

ভিক্টোরিয়া ফলসের নামানুসারে এই মুদ্রার নাম হবে “মোসি-ও-তুনিয়া”।এই মাসের শেষেই চালু করা হবে সোনার মুদ্রা। এর মাধ্যমে স্থানীয় এবং আন্তর্জাতিক ব্যবসাও করা যেতে পারে৷ সে দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর জন মাঙ্গুদিয়া সোমবার এক বিবৃতিতে বলেছেন যে, “মুদ্রাগুলি ২৫ জুলাই থেকে বিক্রির জন্য উপলব্ধ হবে৷ স্থানীয় মুদ্রা, মার্কিন ডলার এবং অন্যান্য বিদেশী মুদ্রার মতোই এই সোনার মুদ্রাগুলি আন্তর্জাতিক মূল্যে এবং খরচের ভিত্তিতে বিক্রি করা হবে। “.

উল্লেখ্য, মুদ্রাস্ফীতি ও যুদ্ধের কবল থেকে অর্থনীতিকে বাঁচাতে এই ধরনের পদক্ষেপ অন্য দেশকেও এর আগে করতে দেখা গিয়েছে। এবার সেই পথই অনুসরণ করল জিম্বাবোয়েও। ২০১৯ সালে ডলার প্রচলনের এক দশক পরে পুরনো মুদ্রাই ফিরিয়ে এনেছিল জিম্বাবোয়ে। কিন্তু তবুও মূল্যবৃদ্ধি রুখতে ব্যর্থ হয়েছে তারা। পরিস্থিতি যা দাঁড়িয়েছে, শ্রীলঙ্কার মতোই বিদেশি মুদ্রার সংকটের মুখে শোচনীয় পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। মুদ্রাস্ফীতি গত মাসে দ্বিগুণেরও বেশি ১৯১ শতাংশ পড়ে গিয়েছে। এই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে মরিয়া সেদেশের প্রশাসন।

28