বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারীরিক নির্যাতন ভারসাম্যহীন যুবতীকে, চাঞ্চল্য হরিশ্চন্দ্রপুরে

ওয়েবডেস্কঃ

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন এক যুবতীকে লাগাতার ধর্ষণ এর অভিযোগ উঠল স্থানীয় তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে । ঘটনাটি ঘটেছে মালদা জেলার হরিশ্চন্দ্রপুরের বড়ই অঞ্চলের বিষণ পুর এলাকায়।

অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে টানা চার মাস ধরে এলাকারই এক মানসিক ভারসাম্যহীন যুবতীকে নিজের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে লাগাতার ধর্ষণ করেন আব্দুল খালেক নামের এক তৃণমূল কর্মী। এরপর মেয়েটির বাড়ির লোক ওই যুবককে মেয়েটিকে বিয়ে করতে বললে সেই মেয়েটিকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে ওই যুবক। পাশাপাশি মেয়ের বাড়ির লোককেও দেওয়া হয় প্রাণ নাসের হুমকি। এমনকি এলাকার শাসকদলের নেতারাও সালিশি সভা ডেকে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ করেন নির্যাতিতা মানষিক ভারসাম্য হীন ওই যুবতির পরিবার ।

এই ঘটনার অভিযোগ হরিশ্চন্দ্রপুর দায়ের করেছে ওই যুবতীর বাড়ির লোক। ঘটনার অভিযোগ পেয়ে ওই অভিযুক্ত তৃণমূল কর্মীকে গ্রেফতার করেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা পুলিশ।আজ অভিযুক্তকে চাঁচল মহকুমা আদালতে তোলা হয় বলে জানান পুলিশ ।

অন্যদিকে অভিযুক্ত আব্দুল খালেক এর ছেলে মোঃ সালামের দাবি তার বাবাকে চক্রান্ত করে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।ছেলে আরও বলেন ওই যুবতীর পরিবারের পক্ষ থেকে টাকা ও জমির দাবি করেছিল। আর তাদের দাবি মানেনি বলেই এই ধরনের অভিযোগ বলে দাবি ওই তৃণমূল নেতার ছেলের।

পাশাপাশি, স্থানীয় পঞ্চায়েত এর কংগ্রেসের মেম্বার আব্দুল মান্নান জানান এর আগে আব্দুল খালেক এর নামে কোন অভিযোগ তারা শুনতে পাননি।এছাড়াও চার মাস আগে ঘটা এই ঘটনা নিয়ে এখন কেন অভিযোগ তা নিয়েও প্রশ্ন তাদের।

ঘটনার সমস্ত দিক খতিয়ে দেখছেন হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ।

36