রেডিও মির্চি ছেড়ে দিলেন মীর

সানডে সাসপেন্স এর মত অনুষ্ঠানে আর শোনা যাবে না মীরের গলা। রেডিও মির্চি ছেড়ে দিলেন তিনি। মির্চিতে কাটানো একাধিক আবেগঘন মুহূর্ত ভক্তদের মনে করিয়ে দিয়েই মীর বলেছেন, “কষ্ট হচ্ছে… একটু…ওই ৯৮.৩% মতন।”

শুক্রবার সকালে নিজস্ব ফেসবুক পেজে মীর লিখেছেন, তিনি মির্চি ছেড়ে দিলেন তবে রেডিও নয়। ফেসবুক পোস্টে মীর জানিয়েছেন, “আমায় শোনার জন্য সবাইকে ভালোবাসা। তবে মির্চি ছেড়েছি, রেডিও নয়।”

১৯৯৪ সালের ৬ আগস্ট রেডিও অফিসে কাজ শুরু করেছিলেন মীর। দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে রেডিওর সাথে জড়িত থাকা তাঁর জাদুকরী কণ্ঠস্বর শ্রোতাদের মুগ্ধ করেছে। দিয়েছে অনাবিল আনন্দ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় মীরের এই পোস্ট দেখামাত্রই দুঃখপ্রকাশ করেছেন তাঁর অগণিত ভক্তকুল। মাত্রা এক ঘণ্টায় ২২ হাজারেরও বেশি মানুষ তাঁর এই পোস্টে এসে রিয়েক্ট করেছেন। কমেন্ট বক্সে জনৈক এক অনুরাগী বলেছেন, “যদি এটা সত্যি হয় তবে শার্লক হোমস আর ব্যোমকেশের গল্প গুলোর মধ্যে আর প্রাণ থাকবে না। আরো‌ একটা‌ প্রিয় জিনিস জীবন থেকে চলে গেল…।” আবার অনেকেই দুঃখপ্রকাশ করে বলেছেন, “তুমি ছাড়া ভাবা যায় না মির্চি বাংলাকে।” আবার কেউ কেউ বলেছে, “সানডে সাসপেন্স মীর ছাড়া ভাবাই যায় না।”

22