ভুয়ো শিক্ষক নিয়োগের পর্দা ফাঁস! জাল নথি দিয়ে চাকরি ২৫০০,বিপাকে যোগী রাজ্য

ওয়েবডেস্কঃ নিয়োগে দুর্নীতি নিয়ে রঙ্গ থামছেনা বঙ্গে। সে শিক্ষক নিয়োগ হোক বা অন্য কোনো সরকারী চাকরি।ইতিমধ্যেই চাকরি বাতিল হয়েছে 269 জন প্রাথমিক শিক্ষকের। চলছে সিবিআই তদন্ত।

এবারে এই একই ঘটনা সামনের এলো যোগী রাজ্যে।উত্তরপ্রদেশে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে আসছে চমকপ্রদ সব তথ্য। বাংলায় শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি নিয়ে সরব হয়েছিল পদ্ম শিবির। এবারে ফাঁস হল বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশে বড়সড় নিয়োগ কেলেঙ্কারি। অভিযোগ, ভুয়ো মার্কশিট, ডিগ্রি দেখিয়ে চাকরি পেয়েছে কয়েক হাজার শিক্ষক-শিক্ষিকা। তদন্ত একে একে সামনে আসছে যোগী রাজ্যের কেলেঙ্কারির ছবি। যা নিয়ে সমালোচনায় সরব বিরোধীদল।

গত কয়েক বছর ধরে উত্তরপ্রদেশে শিক্ষাব্যবস্থায় জাঁকিয়ে বসেছে দুর্নীতি। ভুয়ো মার্কশিট আর ডিগ্রি দিয়ে চাকরি পেয়ে গিয়েছে কয়েক হাজার যুবক-যুবতী। নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে গত তিন বছর ধরে তদন্ত চালাচ্ছে উত্তরপ্রদেশের প্রাথমিক শিক্ষাবিভাগ এবং স্পেশ্যাল টাস্ক ফোর্স। তাদের যৌথ তদন্তে উঠে এসেছে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য।

সরকারী তথ্য অনুসারে, তদন্তের সময় 2,347টি এফআইআর নথিভুক্ত করা হয়েছে এবং 2,461 জন জাল শিক্ষক ধরা পড়েছে। রাজ্যের শিক্ষা বিভাগের এক সিনিয়র কর্মকর্তা জানান, “আমরা ডাটাবেস তৈরি করেছি এবং আমাদের মানবসম্পদ পোর্টালে 10 তম থেকে 12 তম ডিগ্রী কোর্সের ব্যাচেলর অফ এডুকেশন এবং শিক্ষক যোগ্যতা পরীক্ষা সম্পর্কিত সমস্ত মার্কশিট আপলোড করেছি। জেলায় আমাদের কমিটি এই ধরনের অনেকগুলি কেস তদন্ত করছে এবং আমরা ভুয়া শিক্ষকদের সনাক্ত করে সাসপেনশন করছি।”

তবে, বর্তমানে চাকরি পাওয়া সমস্ত শিক্ষক-শিক্ষিকার নাম, মার্কশিট, চাকরির পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরও বিশেষ পোর্টালে নথিভুক্ত করতে শুরু করেছে সরকার । যাতে ভবিষ্যতে এধরনের ঘটনা না ঘটে।

34