স্বামীর অত্যাচার সহ্য করেও তার সঙ্গে ঘর করতে চেয়ে ধর্নায় স্ত্রী

ওয়েবডেস্কঃ

২০২০ সালে সামাজিক ভাবে বিয়ে হয় ফালাকাটা দেশবন্ধুপাড়ার যুবক মিঠুন সাহার সঙ্গে কামাক্ষাগুড়ির বাসিন্দা পরিতোষ তালুকদারের মেয়ের। কিন্তু, অভিযোগ বিয়ের রাত থেকেই নববধূর উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন শুরু করে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। মিঠুন সাহার বাবা, মা, দিদি সহ অন্যরাও নির্যাতন চালাত বলে অভিযোগ। বিষয়টি থানা, আদালত পর্যন্ত গড়ায়।

কিন্তু সেই স্বামীর সাথেই ঘর করার জন্য হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে ধরনায় বসলেন স্ত্রী। শ্বশুরবাড়িতে ঢোকার জন্য সঙ্গে পুলিশও নিয়ে এসেছিলেন তিনি। শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে ফালাকাটা ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের দেশবন্ধুপাড়ায়। ঘটনার খবর পেয়ে ওই মহিলার সঙ্গে কথা বলতে যান এলাকার কাউন্সিলার।

ধরনায় বসা মিঠুন সাহার স্ত্রী বলেন,” আমার কাছে কোর্টের অর্ডার আছে। এদিন পুলিশ নিয়ে এসেও শ্বশুর বাড়িতে ঢুকতে চাই। কিন্তু আমাকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। তাই ধরনায় বসেছি। আমি স্বামীর সাথে সংসার করতে চাই। যতক্ষণ না আমাকে মেনে নিচ্ছে ততক্ষণ ধরনা চালিয়ে যাব।”

যদিও ,ধরনায় বসার সঙ্গে সঙ্গেই শ্বশুর বাড়ির লোকজন বাড়িতে তালা মেরে অন্যত্র গা–ঢাকা দেন।

বিষয়টি নিয়ে দুই পরিবারের সঙ্গেই আলোচনা করে সমাধান বের করার চেষ্টা চলছে বলে জানালেন 13 নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মনোজ সাহা।

28