ভোজন রসিক বাঙালির জন্য সুখবর! ইলিশ উপচে পড়েছে ডায়মন্ড হারবারে

ওয়েবডেস্কঃ

কথায় আছে মাছে ভাতে বাঙালি। আর সেখানে যদি থাকে ইলিশ মাছ তবে তো আর কথাই নেই। বর্ষায় খিচুড়ি ও ইলিশ মাছ ভাজাতেই রয়েছে রসনার পরিতৃপ্তি । আর এই সকল ভোজন রসিক ইলিশ প্রেমী বাঙ্গালীদের জন্য রয়েছে বিরাট বড় সুখবর। মৌসুমের শুরুতেই উপচে পড়েছে ডায়মন্ড হারবারের আরোত গুলিতে।

প্রায় আড়াই থেকে তিন টন ইলিশ মাছ ঢুকেছে ডায়মন্ড হারবার আড়তে যার সাইজ ৪৫০ গ্রাম থেকে ৫০০ গ্রাম।আড়তে পাইকারি দাম প্রতি কেজি ৬০০ টাকা করে। অবশ্য গত ৩ বছর জালে সেভাবে ইলিশ না পড়ায় মরসুমের প্রথম ইলিশ ঢোকাতে আশার আলো দেখছেন মৎস্যজীবী থেকে আড়তদারেরা।

মঙ্গলবার,অর্থাৎ ১৪ জুন শেষ হয়েছে সামুদ্রিক মাছ ধরার ওপর সরকারি নিষেধাজ্ঞা। ১৫ জুন থেকে শুরু হয়েছে ইলিশ ধরার মরশুম। সামুদ্রিক মাছ ও ইলিশের প্রজনন বৃদ্ধির জন্য গত ১৪ এপ্রিল থেকে এই নিষেধাজ্ঞা ছিল।দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপ, ফ্রেজারগঞ্জ, রায়দিঘি, সাগর, ডায়মন্ড হারবার, পাথরপ্রতিমার প্রায় তিন হাজার মৎস্যজীবীরা সমুদ্রে মাছ ধরা শুরু করেছেন মৎস্যজীবীরা।আর মরশুমের শুরুতেই কাতারে কাতারে ইলিশ ঢুকেছে আড়তে।

এই খবরে মৎস্যজীবীদের পাশাপাশি খুশি ইলিশ প্রেমী বাঙালিও। এই সময়টার জন্য অপেক্ষা করে থাকে মাছে ভাতে বাঙালি।

56