সিবিআই তদন্তের গতি প্রকৃতি নিয়ে হতাশ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়

CBI তদন্তের গতিপ্রকৃতি নিয়ে হতাশ বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। মঙ্গলবার হাই কোর্টের  এজলাসে আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথোপকথনেই সেই হতাশা প্রকাশ করলেন তিনি। তিনি বলেন, “আমি ২০২১ সালের নভেম্বরে প্রথম সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলাম। কিছুই হল না। কোনও মেটেরিয়াল উদ্ধার করতে পারেনি তারা এখনও। আমি খুবই হতাশ।” 

শিক্ষা ক্ষেত্রে নিয়োগে দুর্নীতির মামলাগুলিতে সিট এর পরিবর্তে তিনি তদন্ত দায়িত্ব দিয়েছিলেন সিবিআইকে। কিন্তু সিবিআইয়ের তদন্তের গতি প্রকৃতি নিয়ে সন্দিহান তিনি।

 বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, “এই রাজ্যের শিক্ষা ক্ষেত্রে খুব খারাপ সময় যাচ্ছে। এতগুলো সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিলাম, জানি না মুখ্যমন্ত্রীর কাছে কোনও বার্তা পৌঁছেছে কিনা।” এরপরই হতাশ সুরে বিচারপতির মন্তব্য, “সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেওয়ার পর গত সাত মাসে কিছুই হল না। এই দেশে কিছু পালটাবে না। আমি সত্যি বেশ উদ্বিগ্ন। গতকাল থেকে মনে সন্দেহ হচ্ছে, সিবিআই আদৌ কিছু করতে পারবে কিনা! বরং সিটকে দিলে ভাল হত।সিবিআইয়ের ম্যান পাওয়ার নেই।” সিবিআই তদন্তের গতি প্রকৃতি নিয়ে সন্দিহান বিচারপতি বলেন এরপরে তদন্তের দায়ভার কাকে দেয়া যায় সেই নিয়ে তিনি চিন্তাভাবনা করছেন।

30