ধর্ষণ করে জোড়করে গর্ভপাত পরিচারিকাকে, পলাতক তৃণমূল কর্মী!

ওয়েবডেস্কঃ কাটোয়ার ইঁদারাপার এলাকার বাসিন্দা তৃণমূল কর্মী দিলীপ দেবনাথ। ওই এলাকার দু’টি রেস্তরাঁর মালিক, পাশাপাশি একটি হোটেলের ম্যানেজারও। তার বাড়িতে রাঁধুনী এবং পরিচারিকার কাজ করতেন এক যুবতী। স্বামী পরিত্যক্তা বছর আঠাশের ওই যুবতীর দুই সন্তান রয়েছে।

অভিযোগ ,দিলীপের বাড়িতে কাজের সূত্র ধরেই তার সঙ্গে প্রণয়ের সম্পর্ক গড়ে ওঠে ওই যুবতীর, এরপর বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে পরিচারিকার সঙ্গে সহবাসে অন্ত্বঃসত্তা হয়ে পড়লে জোর করে তার গর্ভপাত করানোর হয়।

মহিলার দিদির অভিযোগ,”দিলীপ বোনকে বিয়ে করবে বলে জানিয়েছিল। আলাদা বাড়ি করে সংসার পাতারও স্বপ্ন দেখিয়েছিল। তার পরই দুজনের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হয়।”গত মাসের ২৫ তারিখ থেকে দু’দিন নিখোঁজ ছিলেন দিলীপ। অভিযোগ, সেইসময় কাটোয়ার এক নার্সিংহোমে নিয়ে গিয়ে জোর করে গর্ভপাত করানো হয় তাঁর।

এরপর ২ জুন মণ্ডলহাট থানায় ধর্ষণ এবং জোর করে গর্ভপাতের অভিযোগের দায়ের করেন ওই নির্যাতিতা যুবতী । কিন্তু অভিযোগ দায়েরের পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত।

কাটোয়া-১ ব্লকের তৃণমূলের সহ-সভাপতি বিকাশ চৌধুরী জানান, “অভিযুক্ত তৃণমূলের নেতা বা কর্মী নয়। যা দোষ করেছে তার শাস্তি হবে। আইন আইনের পথে চলবে।”

41