প্রবীণ ভার্সেস নবীন। কোন পথে চলতে চাইছে সিপিএম

ওয়েবডেস্কঃ

সাম্প্রতিক সময়ে রাজ্য তথা দেশের রাজনৈতিক মানচিত্রে একের পর এক সাংগঠনিক রদবদলের পথে চলে রীতিমত শোরগোল ফেলে দিয়েছে দেশের অন্যতম কমিউনিস্ট পার্টি সিপিআইএম। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন এরিয়া থেকে কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন সর্বত্রই আগাপাশতলা সংস্কারের মধ্য দিয়ে চলে দেশের আগামী রাজনৈতিক গতিপ্রকৃতিতে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে এই দল।

এবার রাজ্যের অন্যতম বড় জেলা হিসেবে চিহ্নিত উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা সম্পাদকমণ্ডলী গঠনেও তার ব্যতিক্রম হলো না। প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই সিপিএমের উত্তর ২৪ পরগনা জেলা কমিটি গঠন নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক দেখা দিয়েছিল পার্টির অভ্যন্তরে। সেইসময় রীতিমত ভোটাভুটি করে গঠিত হয়েছিল জেলা কমিটি। আর গত শনিবার জেলা সম্পাদক মণ্ডলীর গঠনের ক্ষেত্রেও আবার সেই ব্যতিক্রমের ই ছাপ পড়ল।

এবারের নতুন জেলা সম্পাদক মণ্ডলীতে ১৫ জন সদস্যের মধ্যে থাকলেন না গৌতম দেব, নেপালদেব ভট্টাচার্য-সহ মোট পাঁচজন বর্ষীয়ান নেতা। জানা গেছে বয়সজনিত কারণে নেপালদেব ভট্টাচার্য বাদ পড়েছেন। শারীরিক অসুস্থতার জন্য এবারের জেলা সম্পাদক মণ্ডলীতেও নেই গৌতম দেব।তবে শনিবার নবগঠিত উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সিপিএমের সম্পাদক মণ্ডলীতে জায়গা পেলেন যুব নেতা সায়নদীপ মিত্র, মহিলা নেত্রী আত্রেয়ী গুহ, দেবশংকর রায়চৌধুরী, রাজীব বিশ্বাস-সহ নতুন পাঁচজন। আমন্ত্রিত সদস্য হয়েছেন রাজু আহমেদ। দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞ নেতারা সম্পাদক মণ্ডলী থেকে বাদ পড়ায় দলের নেতা,কর্মীদের একাংশে যেমন চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। অন্যদিকে, রাস্তায় নেমে আন্দোলন করার মতো নেতারা কমিটিতে স্থান পাওয়ায় আবার খুশি দলের আরেকাংশ। এখন আগামীতে এই নবীন তরতাজা সংগ্রামী মুখেদের সামনে রেখে কিভাবে রাজ্য রাজনীতিতে নিজেদের মেলে ধরতে পারে এই কমিউনিস্ট দল, তারই জন্য উন্মুখ হয়ে রয়েছেন সকলে।

59