মুম্বাইয়ের বহুতল থেকে পড়ে মর্মান্তিক মৃত্যু রায়গঞ্জের নির্মাণকর্মীর

এলাকায় কাজ নেই। তাই তারুণ্য থেকে কৈশোর পার হয়ে যৌবনে পড়তেই দলে দলে গ্রামীণ যুবকরা পিঠে ব্যাগ নিয়ে ছুটছে। না, কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের পথে নয়। তাঁদের বেশিরভাগ অংশই স্কুলের গন্ডি পার করতে পারে না। তাঁরা চলে যায় গ্রাম ছেড়ে কর্মসংস্থানের খোঁজে বিদেশ খাটতে।

ওদের কাছে বিদেশ মানে অন্য কোন দেশ নয়। গ্রাম ছেড়ে ভিন রাজ্যে কাজ করতে যাওয়াই হয়তো ওদের কাছে বিদেশ যাওয়া। ঠিক তেমনভাবেই রায়গঞ্জের শীতগ্রাম অঞ্চলের শিয়ালতোর এলাকার বাসিন্দা কুড়ি বছরের যুবক দিলদার হোসেন পাড়ি দেয় মুম্বাই। পরিবার-পরিজনরা দিলদারকে স্নেহের সাথে ডাকতেন দিলু বলে।

পেশায় নির্মাণকর্মী ওই যুবক মুম্বাইয়ের বহুতলে গতকাল নির্মাণ কাজ করতে করতে পা পিছলে মাটিতে পড়তেই শেষ হয়ে গেল বাংলা ছেড়ে কর্মসংস্থানের খোঁজে বিদেশ গিয়ে ভালোভাবে বাঁচার স্বপ্নের লড়াই। মুম্বাই থেকে ময়নাতদন্তের পর দিলদারের নিথর দেহ বাড়ি ফেরার অপেক্ষায় এখন তাঁর গ্রামবাসীরা।

67