অসহায় ক্ষুধার্ত মানুষের পাশে এবার স্বেছাসেবী সংগঠন “মুক্তির পথ রায়গঞ্জ”।

রায়গঞ্জ:

রাতে অসহায় ক্ষুধার্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায় বহু মানুষকে যাদের দু’বেলার খাবার জোগাড় করতে হিমসিম খেতে হয়। সেই অসহায় মানুষদের পাশে এবার রায়গঞ্জের এক অন্যতম স্বেছাসেবী সংগঠন “মুক্তির পথ রায়গঞ্জ”। বৃহস্পতিবার মাত্র ২ টাকার বিনিময়ে দুঃস্থদের ভরপেট খাওয়ানোর ব্যবস্থা করল এই সংগঠন।

এদিন ভাত, সবজি, ডিম – আলুর ঝোল পাত পেড়ে খায় প্রায় ১৫০জন দুঃস্থ। দুই টাকার বিনিময়ে শহরের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে ঘুরে মাসে দুদিন তাঁরা এভাবেই মানুষের মুখে অন্ন যোগাবেন। আর এই উদ্দেশ্যই এখন তাদের নতুন কর্মসূচি। এদিনের কর্মসূচি তে উপস্থিত ছিলেন সংস্থার সম্পাদক সামিম আক্তার, সভাপতি প্রণব দেবনাথ, সহ-সভাপতি বিধান বর্মন, সহ-সম্পাদক শান্তনু চক্রবর্তী,কোষাধক্ষ্য কৌশর আলী, সক্রিয় সদস্য অনীশ দে, আনজার আলী, শাহাজান আলী,নয়ন দাস অমর চক্রবর্তী, পারমিতা পাল, রেজু পাল,অঙ্কন সাহা ইটাহার শাখার জ্যোতি আলম, শফিকুল হক সহ অন্যান্যরা l

এদিন ওই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সম্পাদক সামিম আক্তার জানান, মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার জন্যই এই উদ্যোগ। সংগঠনের উদ্দেশ্য কেউ যাতে খালি পেটে না থাকে। তবে, অনেকেই আছেন যাঁদের বুক ফাটলেও মুখ খুলতে চান না। তাই তাঁদের মনোবল যাতে কোনওভাবে নষ্ট না হয়, তাই আপাতত দু’টাকার বিনিময়ে আমরা মাসে দুদিন শহরের বিভিন্ন জায়গা ঘুরে ঘুরে মানুষের কাছে অন্ন পৌঁছে দেবো। তবে মানুষের সহযোগিতা পেলে এরপর থেকে আমরা তা প্রতিদিন করব।

এদিন প্রায় ১০০ থেকে ১৫০ জনের মধ্যে আহার বিতরন করা হয়। ২ টাকায় ভাত, সবজি, ডিম – আলুর ঝোল পেয়ে কার্যত খুশি অনেকেই। অন্যদিকে, শহরে এহেন আয়োজনকে স্বাগত জানিয়েছে অনেকেই। দিন দিন দ্রব্যমূল্য যে হারে বাড়ছে, এমন পরিস্থিতিতে মাত্র ২ টাকায় এতকিছু, অনায়াসে অনেক মানুষের মুখে হাসি ফোটাবে। আর এই হাসিই সংগঠনের প্রতিটি সদস্যের আত্মতৃপ্তির মূলধন বলে জানিয়েছেন সংস্থার সম্পাদক সামিম আক্তার।

134