তীরবিদ্ধ ভবঘুরে ষাঁড় এর চিকিৎসায় উত্তর দিনাজপুর পিপল ফর এনিম্যালস

ওয়েবডেস্কঃ

কালিয়াগঞ্জ থানার অন্তর্গত বরুনা গ্রাম পঞ্চায়েতের মেহেন্দিপাড়ায় গ্রামবাসীরা একটি ধর্মের ষাঁড়কে তীর বিদ্ধ অবস্থায় ঘুরে বেড়াতে দেখে। ঘটনাটি জানতে পেরে স্থানীয় বাসিন্দা আশিস মণ্ডল উত্তর দিনাজপুর পিপল ফর এনিমেলস এর অফিসে ফোন করে ষাঁড়টিকে বাঁচানোর জন্য অনুরোধ করেন।

রবিবার বলে পশু হাসপাতাল বন্ধ থাকায় সংস্থার অভিজ্ঞ সদস্যরা এম্বুলেন্স নিয়ে পৌছে যায় সেই গ্রামে । তারপর গ্রামবাসীদের সহযোগিতায় বেশ কিছুক্ষণের চেষ্টায় ষাঁড়টিকে ধরে বেঁধে ফেলা হয়। তারপর অস্ত্রপোচার করে ষাঁড় গরুটির দেহে বিদ্ধ হয়ে থাকা তীরটিকে বের করা হয়। দেওয়া হয় প্রয়োজনীয় ঔষধ পত্র।

সংস্থার সম্পাদক গৌতম তান্তিয়ার নেতৃত্বে ষাঁড়টির চিকিৎসা করে পশুপ্রেমী সংস্থার সদস্য নিবারণ দেবনাথ, সৈকত সাহা এবং অনুস চক্রবর্তী। সমস্ত কিছু করা হয় ডক্টর কৃষ্ণেন্দু মন্ডল এর পরামর্শ নিয়ে। মেহেন্দিগ্রামের সমস্ত গ্রামবাসী ষাঁড়টিকে ধরতে এবং চিকিৎসায় সবরকম সাহায্য করে। সমস্ত কর্মকাণ্ড সম্পন্ন হয় বরুনা পঞ্চায়েতের প্রধান গায়ত্রী রায় এর স্বামী বিশ্বজিৎ দেবশর্মার উপস্থিতিতে।

তিনি খুব সাহায্য করেন ষাঁড়টির চিকিৎসায় তদারকি করে ষাঁড়টিকে সুস্থ করে তোলার জন্য। ধর্মের ষাঁড়টিকে এইভাবে কে বা কারা তীর মারলো, গ্রামবাসীদের সেটা তদন্ত করতে বলা হয় পশুপ্রেমী সংস্থার পক্ষ থেকে।অভিযোগ জানানো হবে কালিয়াগঞ্জ থানাতেও।

139