জ্বালানির দামের ওপর কেন্দ্র কর কমালেও অভিন্ন রয়েছে বাংলার কর,তোপ বিরোধীদের

ওয়েবডেস্কঃ

গতকাল পেট্রোলিয়াম জাতীয় দ্রব্যের উপর থেকে একটি বিরাট সংখ্যার কর কমলো কেন্দ্র। যার ফলে বর্তমান বাজারে পেট্রোলের দাম কমলো সাড়ে ৯ টাকা পাশাপাশি ডিজেলের দাম কমলো ৭ টাকা প্রতি লিটার। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তাদের কর কমায়নি বেশকিছু রাজ্য। তার মধ্যে রয়েছে বাংলা, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান, তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ, ঝাড়খণ্ড, ও কেরলের মতো রাজ্যগুলো।

এই বিষয় নিয়েই বিরোধী শাসিত রাজ্যগুলিকে নিশানা করলেন কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী। তিনি টুইট করে বলেন, “আমি একটা বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাই। কেন্দ্র সরকার দু’দফা শুল্ক কমানোর পরও বেশ কিছু রাজ্যে, পেট্রল-ডিজেলের দাম বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির থেকে ১০-১২ টাকা করে বেশি।”

অন্যদিকে কেরল দুই জ্বালানি তেলের উপর যথাক্রমে ২.৪১ টাকা এবং ১.৩৬ টাকা কর কমিয়েছে। পাশাপাশি রাজস্থানে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম যথাক্রমে কমেছে , ২ টাকা ৪৮ পয়সা এবং ১ টাকা ১৬ পয়সা।

অন্যদিকে কেন্দ্র সরকারের জ্বালানি গ্যাস ও পেট্রোল ডিজেলের দাম কয়েকগুন বাড়িয়ে সামান্য কিছু কমানোতে কেন্দ্রকে নিশানা করেছে বিরোধী দল গুলো। ট্রোল শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। প্রশ্ন উঠছে সামনে কি কোনো বিধানসভা ভোট আছে?? নইলে এই সরকার জন দরদী হঠাৎ করে হয়ে উঠলো এমনি এমনি তো নয়!!

কিন্তু এ বিষয়ে এখনো পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেনি বাংলা সহ আরো বেশ কয়েকটি রাজ্য। কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা টুইটারে লেখেন, ‘কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী, আজ পেট্রলের দাম ১০৫.৪১ টাকা। আপনি বলছেন, প্রতি লিটার পেট্রলের দাম ৯.৫০ টাকা কমবে। আজ থেকে ৬০ দিন আগে অর্থাৎ ২০২২-এর ২১ মার্চ, প্রতি লিটার পেট্রলের দাম ছিল ৯৫.৪১ টাকা। এই ৬০ দিনে পেট্রলের দাম প্রতি লিটারে ১০ টাকা বাড়িয়েছেন। আর এখন প্রতি লিটার পেট্রলে সাড়ে ৯ টাকা কমিয়ে দিচ্ছেন! সাধারণ মানুষকে বোকা বানানো বন্ধ করুন।’

68