রাতারাতি কোটিপতি রায়গঞ্জের ভ্যানচালক

ওয়েব ডেস্ক: এ যেন ‘মালামাল উইকলি’ সিনেমার গল্প।রাতারাতি কোটিপতি রায়গঞ্জ ব্লকের বড়ুয়া অঞ্চলের বাসিন্দা দীপক দাস।পেশায় ভুটভুটি ভ্যান চালক দীপক দাস।৬ টাকা করে মোট ৬০ টাকার টিকিট কাটেন। আর তাতেই কেল্লাফতে।মুহূর্তের মধ্যে খুলে যায় ভাগ্য।প্রথমে দীপক বাবু টিকিট মিলিয়ে দেখলে দেখেন এক কোটি টাকার টিকিট বেঁধেছে পরে আবার মোবাইলে টিকিটের নম্বর মেলাতেই তিনি যে কোটিপতি হয়েছেন তা নিশ্চিত হয়ে যান।এরপরই পুলিশকে খবর দিয়ে সোজা ছোটেন রায়গঞ্জ পুলিশ স্টেশনে।এতো টাকা পেয়ে কী করবেন দীপক বাবু তার উত্তরে জানান বাড়ি তৈরি করবেন এবং চার মেয়ের বিয়ে দেবেন।তবে ভুটভুটি ভ্যান চালানো তিনি ছাড়বেন না কারণ ওটা দীপক বাবুর পেশা।দীপক বাবুর কোটি পতি হওয়ায় স্বাভাবতই খুশি প্রতিবেশীরা।প্রতিবেশী রিপন সরকার জানান,উনি ভ্যান চালিয়ে যে টাকা আয় করতেন সেই টাকা থেকে প্রায়ই টিকিট কাটতেন। তবে সেই টিকিটগুলো থেকে খুব বেশি টাকা তিনি পেতেন না বলে আমরা খোঁজও রাখতাম না তবে এবার সর্বোচ্চ পুরষ্কার পাওয়ায় আমরা ভীষণ খুশি।

370