চুরি করতে এসে বাড়িতে আগুন ধরিয়ে পালাল চোর

ওয়েবডেস্ক: রাতের অন্ধকারে বাড়িতে চুরি করতে এসে বাড়ির আসবাবপত্রে আগুন ধরিয়ে পালাল চোর। অল্পের জন্য রক্ষা পেল আশপাশের প্রতিবেশী বাসিন্দাদের বাড়ি। বৃহস্পতিবার সকালে এমনি ঘটনায় ব্যপক চাঞ্চল্য ছড়ালো উত্তর দিনাজপুর জেলার ইটাহার থানার ঘেড়া গ্রামে। ঘটনার জেরে প্রথমিক ভাবে লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে ঘেড়া গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থ বাসিন্দা আব্বাস আলীর পরিবারের তরফে জানা যায়। সকালে পরিবারের সদস্য সহ এলাকার বাসিন্দাদের বিষয়টি নজরে আসলে তারা নিজেরাই আগুন নেভায়। এরপর খবর দেওয়া হয় ইটাহার থানায়। ঘটনাস্থলে যায় ইটাহার থানার পুলিশ।


ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, বাড়ির মালিক আব্বাস আলী কর্মসূত্রে ভীন রাজ্যে আছে। বাড়িতে ছিলেন তার স্ত্রী মর্জিনা খাতুন। পাশেই বাড়ির মালিক আব্বাসের অন্য ভাইদের বাড়ি। কিন্তু গতকাল মর্জিনা খাতুন বাড়িতে তালা মেরে পাশের গ্রামে বাবার বাড়ি গেছিল। ফলে বাড়ি ফাঁকা থাকার সুযোগে কেউ বা কারা ছাঁদের দরজা ফাঁকা করে বাড়িতে ঢুকে শোবার ঘরের গেটের তালা ভেঙে ঘরে থাকা মূল্যবান জিনিসপত্র চুরি করে আগুন লাগিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। সকালে বাড়ি থেকে ধোঁয়া বেরোতে দেখে আব্বাস আলীর ভাই ও স্থানীয় বাসিন্দারা। এরপর মর্জিনা খাতুনকে খবর দেয়। খবর পেয়ে মর্জিনা খাতুন বাড়িতে এসে সকলে মিলে বাড়ির মূল গেটের তালা খুলে ভিতরে ঢুকে দেখে শোবার ঘরের তালা ভাঙা। পাশাপাশি ঘরে থাকা আলমারি ভেঙে জিনিসপত্র লন্ডভন্ড হয়ে পরে মাটিতে আছে এবং আসবাবপত্রে আগুন জ্বলছে। তরিহরি তারা নিজেরাই অগুন নিভিয়ে ইটাহার থানায় খবর দেয়। পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ সোনা-গহনা, নগদ টাকা চুরি এবং আগুন লেগে বাড়িতে থাকা ধান, চাল, বাড়ির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ মূল্যবান জিনিস পত্র পুরে তাদের লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। খবর পেয়ে বেশকিছুক্ষন পর ঘটনাস্থলে যায় ইটাহার থানার পুলিশ। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

175