Categories
জেলা

কালিয়াগঞ্জে বউ ফেরতের দাবিতে শ্বশুর বাড়ির সামনে ধর্না জামাইয়ের

ওয়েবডেস্কঃ বউ ফেরতের দাবিতে শ্বশুরবাড়ির সামনে ধর্নায় বসলো জামাই। শনিবার দুপুরে এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় কালিয়াগঞ্জের ফতেপুর মোড়ে। পরিস্থিতি সামাল দিতে ছুটে আসে কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ। বউ ফেরতের দাবিতে ধর্নায় বসা এলাকার যুবক সিদ্ধার্ত জয়সোয়ালের অভিযোগ তার স্ত্রী দীপাকে জোর করে গৃহবন্দী করে রেখেছে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। নিজের স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চাইলেও তাকে বাড়িতে ঢুকতে দিচ্ছে না শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। এদিন ম্যারেজ সার্টিফিকেট ও বিবাহের কিছু ছবি সামনে রেখে সিদ্ধার্ত দাবি, গতবছর ভালবাসার টানে তাদের বিয়ে হয়। তার বাড়ির লোকজন এই বিয়ে মেনে নিলেও দীপার বাপের বাড়ির লোক এই বিয়ে মেনে নেয়নি। ২০২০ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর আইন মাফিক তাদের বিয়ে রেজিস্ট্রি হয়েছিল।
সিদ্ধার্ত জানান, কাজের সুত্রে বাহিরে থাকি, এতদিন সেখানেই তার সঙ্গে সংসার করেছে দীপা। সম্প্রতি দীপাকে নিয়ে ফতেপুরে নিজের বাড়িতে আসি। এখানে আসার পর সম্পর্ক মেনে নেবার কথা বলে শ্বশুরশাশুড়ির ডাক দিলে আমাকে নিয়ে দীপা তার বাপের বাড়িতে যায়। প্রথম দু-তিনদিন যোগাযোগ থাকলেও এরপর থেকে আমাকে শ্বশুরবাড়িতে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। মোবাইলে স্ত্রীর যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। শুনতে পাচ্ছি দীপাকে আর আমার কাছে যেতে দেবে না শ্বশুরবাড়ির লোকজন, তারা নাকি ডির্ভোস করাতে চায়। আমার স্ত্রী দীপা গর্ভবর্তী ছিল, জানতে পেরেছি স্ত্রীর গর্ভের সন্তান নষ্ট করা হয়েছে। কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সিদ্ধার্তকে নিয়ে যায় দীপার কাছে। এতে অবশ্য সিদ্ধার্তের কোন লাভ হয়নি, কারণ স্বামীর ঘরে ফিরতে অস্বীকার করে দীপা।

87

Leave a Reply Cancel reply