Categories
জেলার খবর

করণদিঘীতে আবার দুর্গাপুজা

ওয়েবডেস্ক: বিজয়া দশমীর পর ফের দুর্গাপূজা! অবাক হচ্ছেন? প্রতি বছর ঠিক এমনটাই হয় করণদিঘীতে। তবে তিনি পূজিত হন দুর্গা নন রাখাল দেবী নামে।রাজবংশী সমাজের ঐতিহ্যবাহী এই পূজোর প্রচলন শুরু হয় কয়েক শত বছর আগে।

সাধারনত দশমীতে দেবী দূর্গার বিসর্জন হলেও উত্তর দিনাজপুর জেলার করনদিঘীর দোমহনা গ্রাম পঞ্চায়েতের এলাকার বাড়োডাঙ্গীতে লক্ষ্মী পূজার পর প্রথম শনিবার রাখাল দেবীর পূজার প্রচলন আছে।তবে রাখাল দেবী দূর্গার নামের পিছনেও বহু ইতিহাস আছে।স্থানীয় বয়জ্যেষ্ঠদের কাছ থেকে জানা যায় বাড়োডাঙ্গীতে একসময় একদল বালক মাঠের ঘাস খাওয়াতে গরু,ছাগল সহ অন্যান্য গবাদি পশু নিয়ে চড়াতে আসে।খেলার ছলে কোনো এক সময় তারা দুগ্গা দুগ্গা খেলায় মেতে ওঠেন।পূজা কমিটির সদস্য পঞ্চানন সিংহ,জয়ন্ত সিংহরা জানান এরপর ছেলেরা কেউ দূর্গা,কেউ কার্তিক গনেশ,কেউ লক্ষ্মী সরস্বতী ও মহিষাসূর সেজে খেলা করেন।এরমধ্যেই একজন অপর একজনকে বলির পাঁঠা সাজিয়ে বাঁশের লাঠি দিয়ে বলি দিলে নাকি সত্যি সত্যিই বলি হয় যায়।সেই থেকেই রাখাল দেবী দূর্গা নামে পূজিত হন।

আজ শনিবার সকাল থেকেই মহাধুমধাম করে পূজা শুরু হয়।করনদিঘী বিধানসভার বিধায়ক গৌতম পাল,করনদিঘী থানার আইসি সৌম্যজিত রায় পূজা মন্ডপে এসে ভক্তি প্রনাম জানান। করনদিঘী,বাড়োডাঙ্গী,মাদারগাছী,টুঙ্গিদঘী,বিকৌর,রায়গঞ্জ ছাড়াও পার্শ্ববর্তী বিহার রাজ্যের মানুষের সমাগমে জমজমাটি পুজো হল এই করোনা আবহেও।

122

Leave a Reply Cancel reply