Categories
দেশের খবর

এয়ার ইন্ডিয়ার পর বিলগ্নীকরণের পথে প্রতিরক্ষা ও মহাকাশ : কতটা নিরাপদ সুরক্ষা সংশয়ে বিরোধীরা

ওয়েব ডেস্ক: আগামীতেও বিলগ্নীকরণের পথে হাঁটতে চলেছে মোদি সরকার। বিলগ্নীকরণ নিয়ে সরকারের অবস্থান স্পষ্ট করলেন প্রধানমন্ত্রী।  সেই সঙ্গে তাঁর সরকারের সংস্কারমূলক ‘সুপরিকল্পিত সিদ্ধান্ত’ নিয়েও জোরদার সওয়াল করেছেন তিনি। তিনি বলেন, সরকারি ক্ষেত্র সম্পর্কে সরকারের নীতি হল যে ক্ষেত্রগুলি প্রয়োজন নেই সেগুলো বেসরকারি উদ্যোগের জন্য উন্মুক্ত করা উচিত। উদাহরণ হিসাবে তুলে ধরেছেন লোকসানে চলা রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান পরিবহণ সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়াকে কীভাবে বিলগ্নীকরণ হয়েছে।

সোমবার ভারচুয়াল অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে ইন্ডিয়ান স্পেস অ্যাসোসিয়েশনের সূচনায় মোদি বলেন, “দেশে আগে কখনও এত সুপরিকল্পিত সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী সরকার আসেনি। যেভাবে সরকার সাফল্যের সঙ্গে লোকসানে চলা এয়ার ইন্ডিয়ার (Air India) বিলগ্নীকরণ করেছে তা এই সরকারের প্রতিশ্রুতি এবং সব বিষয়কেই তারা কত গুরুত্ব দেয়, সেই চিত্রই তুলে ধরেছে।” প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য তাৎপর্যপূর্ণ। সিদ্ধান্তের কথা বলতে তিনি যে বিলগ্নীকরণের জন্য দরজা খুলে দেওয়ার বিষয়টিকেই সামনে রাখতে চাইছেন তা বলার অপেক্ষা রাখে না। বিলগ্নীকরণ নীতি বারবারই মোদি সরকারকে সমালোচনায় বিদ্ধ করেছে।

এদিন মোদি নিজেই বিলগ্নীকরণের পক্ষে সওয়াল করে তার পালটা জবাবই দিলেন বলে মনে করছে ওয়াকিবহালমহল। পাশাপাশি আগামী দিনে তাঁর সরকার যে বিলগ্নীকরণকে আরও গুরুত্ব দিতে চলেছে এদিন তিনি স্পষ্টভাবে সেই বার্তাও দিয়ে রাখলেন। মহাকাশ এবং প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে বিনিয়োগের আহ্বান করেন তিনি। জাতীয় স্বার্থেই এই আবেদন এবং কেন্দ্র সরকারের সংস্কারমূলক পদক্ষেপ ‘আত্মনির্ভর ভারতে’র লক্ষ্যে বলেও উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

তবে প্রতিরক্ষা ও মহাকাশ বিষয়ে বেসরকারি বিনিয়োগ হলে তা  রাষ্ট্রের সুরক্ষার পক্ষে তা কতটা নিরাপদ হতে পারে তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন বিরোধীরা।

24

Leave a Reply