Categories
জেলা

খেলতে গিয়ে বচসা, তারপরেই এক বন্ধু ছুরি চালিয়ে দিল অন্য বন্ধুর পেটে!

ওয়েবডেস্কঃ মাঠে ফুটবল খেলতে গিয়ে দুই বন্ধুর মধ্যে বচসা। রাগের মাথায় বন্ধুর পেটে চালিয়ে দেয় ছুরি। বুধবার বিকেলে এমনই ঘটনার সাক্ষী থাকলো উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া থানার সোনাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের গুঞ্জরিয়াগজ জুনিয়ার বালিকা বিদ্যালয় মাঠ পার্শ্বস্থ এলাকার বাসিন্দারা। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় এদিন বিকেলে গুঞ্জরিয়াগজ জুনিয়ার বালিকা বিদ্যালয় মাঠে ফুটবল খেলছিল স্থানীয় কিশোরেরা। খেলার মধ্যেই হঠাৎ কোন কারণবশত বিজয় ওরাও এবং সন্দীপ সিংহের মধ্যে বচসা শুরু হয়। বচসা চলাকালীন হঠাৎই সন্দীপ সিংহ বাড়ি থেকে ছুরি নিয়ে এসে তার বন্ধুর পেটে চালিয়ে দেয় বলে অভিযোগ বিজয় ওরাও এর পরিবারের। হঠাৎ এমন ঘটনায় হতভম্ব হয়ে পড়ে মাঠের মধ্যে থাকা অন্যান্যরা। এরপর স্থানীয়দের সহযোগিতায় ওই কিশোরকে চোপড়া দোলুয়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানেও তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল স্থানান্তর করার পরামর্শ দেন ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বিজয়ের বাবা বাবলু ওরাও বলেন আমি কাজে গিয়েছিলাম, হঠাৎ করে আমার কাছে খবর আসে আমার ছেলে আহত হয়েছে। আমি খবর পাওয়া মাত্রই চোপড়া হাসপাতাল পৌঁছাই। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ইসলামপুর মহাকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানেও তার অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়ায়, তাকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছি। ঘটনার বিষয় সম্পর্কে অবগত নই। সম্পূর্ণ বিষয় জেনে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে চোপড়া থানায় অভিযোগ জানাবো।

74

Leave a Reply