প্রবল জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ফের শিশুমৃত্যুর ঘটনা জলপাইগুড়িতে।

ওয়েবডেস্কঃ ফের মৃত্যু ঘটলো জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালের এসএনসিইউয়ে এক পাঁচ দিনের সদ্যোজাত শিশু কন্যার। প্রিয়াঙ্কা দাস নামে ধূপগুড়ির বারোঘরিয়া গ্রামের বাসিন্দা দিন ছ’য়েক আগে এক শিশু কন্যার জন্ম দিয়েছিলেন। জন্মের পরই তার শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। সাথে সাথে তাকে জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে ‘সিক এন্ড নিওনেন্টাল কেয়ার ইউনিটে’ ভর্তি করে। কিন্তু সোমবার মৃত্যু হয় সেই ছোট্ট প্রানের।

শিশুর বাবা সুরজিৎ দাস বলেন, “জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ধূপগুড়ি হাসপাতাল থেকে জলপাইগুড়িতে পাঠানো হয়েছিল। এখানে এনেও বাঁচাতে পারলাম না বাচ্চাকে।”

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার থেকে সোমবারের মধ্যে জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে ৩৯ জন শিশু ভর্তি হয়েছে। পাশাপাশি ২৯ জন শিশুকে ছুটিও দেওয়া হয়েছে। শ্বাসকষ্ট ও অন্যান্য সমস্যা বেড়ে যাওয়ায় সাত শিশুকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। বর্তমানে ১১৯ জন শিশু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদের মধ্যে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত কেউ নেই। করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক শিশু চিকিৎসাধীন রয়েছে।

109