Categories
অন্য খবর

লক্ষ্মীগঞ্জে দিনে দুপুরে দুঃসাহসিক ডাকাতি যা হারমানাতে পারে যেকোনো হিন্দি সিনেমাকে।

ওয়েবডেস্কঃ দিনেদুপুরে দুঃসাহসিক ডাকাতি চন্দননগর লক্ষ্মীগঞ্জ বাজারে। পুলিশের সাথে রিতিমত গুলির লড়াই ডাকাতদলের। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুর তিনটে নাগাদ। লক্ষ্মীগঞ্জ বাজারে জিটি রোডের পাশে মুথুট ফিনকর্প গোল্ডলোন নামক একটি বেসরকারি ফিনান্স কোম্পানি রয়েছে। নীচতলায় ওষুধের দোকান, একটি রাষ্ট্রয়াত্ত্ব ব্যাঙ্কের এটিএম থাকলেও দ্বিতল ওই ভবনের দুইতলায় রয়েছে সেই ফিনান্স কোম্পানি। মঙ্গলবার দুপুর তিনটে নাগাদ বেশ কয়েক জনের এক ডাকাত দল ফিনান্স কোম্পানিতে গ্রাহক সেজে ঢোকে। সেখানে ঢুকেই নিরাপত্তারক্ষীর মাথায় আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে শুরু হয় লুঠপাট। ফিনান্স কোম্পানিতে থাকা কোন কর্মী সাইরেন বাজিয়ে দিতেই নিরাপত্তাকর্মী ও অন্য এক কর্মীকে বেধরক মারধর করে ডাকাত দল। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে চলে আসে চন্দননগর থানার পুলিশ। একে একে উপস্থিত হয় চন্দননগর কমিশনারেটের আধিকারিক সহ বিশাল পুলিশ বাহিনি। দুজন পালাতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পরে যায়। জনা তিনেক দুষ্কৃতি তখন ফিনান্স কোম্পানির দ্বিতল থেকে পুলিশকে লক্ষে করে গুলি চালাতে থাকে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। বেশকিছুক্ষন দু’পক্ষের মধ্যে চলে গুলির লড়াই। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে ওই বিল্ডিংএর ছাদ দিয়ে পালিয়ে যায় দুঃষ্কৃতিরা। যদিও ইতিমধ্যে জেলা জুড়ে নাকা চেকিং শুরু করে দেয় পুলিশ। চুঁচুড়া থানা এলাকায় নাকা চেকিংএ আরও একজন ধরা পরে বলে খবর। ঘটনায় লক্ষ্মীগঞ্জ বাজারের মত জনবহুল জায়গায় এই ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পরেন স্থানীয়রা। গুলির লড়াইতে কেউ হতাহত হয়নি। ডাকাতিতে ফিনান্স কোম্পানির কিছু খোওয়া গেছে কিনা সেসব খতিয়ে দেখছে পুলিশ। চন্দননগর থেকে জিয়াউল হকের রিপোর্ট

67

Leave a Reply