Categories
শিক্ষা

লঘু পাপে গুরু দণ্ড: আগামীকাল থেকে ক্লাস করতে পারবেন বিশ্বভারতীর ৩পড়ুয়া

ওয়েবডেস্ক: বিশ্বভারতীর উপাচার্যের সিদ্ধান্তের উপর অন্তর্বর্তীকালীন স্থগিতাদেশ জারি করল কলকাতা হাইকোর্ট। আগামিকাল থেকেই ওই তিন পড়ুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দিতে পারবেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘সন্মানহানি’ এবং ‘শৃঙ্খলাভঙ্গ’-র অভিযোগে তিন পড়ুয়াকে ৩ বছরের জন্য বহিষ্কার করেছিল বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত ‘লঘু পাপে গুরুদণ্ড’ বলে জানিয়েছে বিচারপতি রাজশেখর মানথা।

উপাচার্য যদি নিজেকে আইনে চেয়ে বড় মনে করেন তবে তাঁর বিরুদ্ধে আদালত ব্যবস্থা নেবে

 চলতি বছরের ৯ জানুয়ারি ছাতিমতলায় এক অনুষ্ঠান চলাকালীন কিছু দাবি নিয়ে শান্তিপূর্ণ অবস্থানে সামিল হয়েছিলেন পড়ুয়ারা। সেই অবস্থান বিক্ষোভ ‘বিশ্বভারতীর সন্মানহানিকর’, ‘শৃঙ্খলাভঙ্গ’ এর পাশাপাশি অর্থনীতি বিভাগে ভাঙচুরের অভিযোগ এনে তিন পড়ুয়াকে সাসপেন্ড করে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। 

গত ২৩ অগাস্ট রাতে বিশ্বভারতীর অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র তথা এসএফআই নেতা সোমনাথ সৌ, হিন্দি শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের ছাত্রী রূপা চক্রবর্তী ও অপর ছাত্রনেতা ফাল্গুনী পানকে ৩ বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়। সিদ্ধান্ত লিখিতভাবে জানায় বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। এরপর থেকেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হতে থাকে। বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানান পড়ুয়ারা। কর্তৃপক্ষ তা না মানলে অবস্থান বিক্ষোভে বসেন আন্দোলনকারী পড়ুয়ারা।

কার্যত উপাচার্যকে সতর্ক করে দিয়ে বিচারপতি জানান যে, উপাচার্য যদি নিজেকে আইনে চেয়ে বড় মনে করেন তবে তাঁর বিরুদ্ধে আদালত ব্যবস্থা নেবে।

33

Leave a Reply