Categories
দেশের খবর

‘গরুর কল্যাণ হলেই এ দেশের কল্যাণ হবে’, গরুকে জাতীয় পশু করার দাবি হাইকোর্টের!

ওয়েবডেস্কঃ ভারতবর্ষে গরুকে দেওয়া হয় ‘মা’য়ের স্থান। সেই কারণেই গরু পূজিত হয় ‘মাতা’ হিসেবে। আর এবার সেই গো-মাতাকে জাতীয় পশু হিসেবে স্বীকার করার দাবি তুললো এলাহাবাদ হাইকোর্ট।

আদালত বলেছে, ‘হিন্দুদের মৌলিক অধিকারের মধ্যে গরুর সুরক্ষা অন্তর্ভুক্ত করা উচিত।’ ভারতীয় ধর্মগ্রন্থ, পুরাণ এবং শাস্ত্রে গরুর গুরুত্ব সম্পর্কে বিশদ বিবরণ দিয়ে আদালত বলেন, ‘ভারতে বিভিন্ন ধর্মের নেতা ও শাসকরা সবসময় গরু রক্ষার কথা বলেছেন। ভারতের সংবিধানের 48 অনুচ্ছেদে আরও বলা হয়েছে যে গরু শাবক রক্ষা করবে এবং দুগ্ধ এবং ক্ষুধার্ত পশু সহ গরু জবাই নিষিদ্ধ করবে। ভারতের 29 টি রাজ্যের মধ্যে 24 টিতে গরু জবাই নিষিদ্ধ।’

বুধবার এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি শেখরকুমার যাদব গোহত্যা সংক্রান্ত একটি মামলায় অভিযুক্ত শেখর কুমার যাদব এর জামিনের আবেদনের শুনানিতে বলেন, ‘‘গরু ভারতীয় সংস্কৃতির সঙ্গে অঙ্গাঙ্গি ভাবে জড়িত। তাই গোরুকেই দেশের জাতীয় পশু করা উচিত।’’

জামিন খারিজের কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বিচারপতি জানান, গোরু সম্পর্কে ভারতীয় সমাজে ভাবাবেগ রয়েছে। অভিযুক্তকে জামিন দেওয়া হলে সামাজিক সম্প্রীতি বিঘ্নিত হবে।

35

Leave a Reply