Categories
রাজ্য

কোয়াক ডাক্তার দের স্বীকৃতির ঘোষণায় তীব্র আপত্তি জানালো ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টর্স ফোরাম!

ওয়েবডেস্কঃ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বৃহস্পতিবারই ঘোষণা করেন, কোয়াক ডাক্তারদেরও এখন থেকে গ্রামাঞ্চলে ব্যবহারের জন্য গাইডলাইন তৈরি করা হচ্ছে।

এই ঘোষণায় তীব্র আপত্তি জানালো ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টর্স ফোরাম। রীতিমতো প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে নিজেদের বক্তব্য তুলে ধরেছেন তারা। ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টর্স ফোরামের স্পষ্ট বক্তব্য, ‘ হাতুড়ে চিকিৎসকদের গ্রামে সরকারি হাসপাতালে নিয়োগ করার কথা এবং নার্সিং প্র্যাক্টিশনার তৈরি করার কথা বলেছেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। আমাদের সংগঠন সর্বতোভাবে এই ঘোষণার বিরোধিতা করছে।’

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ফোরাম জানায় , ‘আমাদের দেশের আইন অনুযায়ী পাশ করা ডাক্তারবাবু ছাড়া কেউ রোগী দেখতে পারেন না। কিন্তু প্রশাসনের নাকের ডগায় অসংখ্য অপ্রশিক্ষিত লোক চিকিৎসক সেজে মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলে। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই প্রশাসন কোনও পদক্ষেপ করে না। উপরন্তু এখন এই ম্যালপ্রাক্টিসকে সরকারি বৈধতা দেওয়ার অপচেষ্টাকে আমরা ন্যক্কারজনক বলে মনে করি। আমরা মনে করি স্বাস্থ্যক্ষেত্রে মডার্ন মেডিসিনের ডাক্তারদের যেমন ভূমিকা রয়েছে, তেমনি ভূমিকা রয়েছে আয়ুশ ডাক্তারদের। এবং নার্সদের ভূমিকা অবশ্যই অনস্বীকার্য। আমরা চাই জনস্বার্থে প্রত্যেকে নিজেদের পরিধির ভিতরে থেকে নিজেদের ভূমিকাটুকু পালন করুক।’

তারা আরও বলেন , ‘যখন কেন্দ্রীয় সরকার আয়ুশ ডাক্তারদের মডার্ন মেডিসিনের ওষুধ লেখার অনুমতি দিতে চেয়েছিল, আমরা তার সক্রিয় বিরোধিতা করেছি। ঠিক সেই ভাবে নার্সিং প্র্যাক্টিশনার তৈরির ভাবনাচিন্তারও আমরা বিরোধিতা করছি। মানুষের স্বাস্থ্যের অধিকার সুরক্ষিত রাখতে ওয়েস্টবেঙ্গল ডক্টরস ফোরাম যে কোনও ধরনের হাতুড়ে বা খিচুড়ি চিকিৎসা ব্যবস্থার বিরোধী ছিল, আছে এবং থাকবে। আমরা রাজ্য প্রশাসনের কাছে বিনীত অনুরোধ রাখছি, এই ধরণের জনস্বার্থ বিরোধী প্রচেষ্টা থেকে বিরত থাকার জন্য। আমরা আশাবাদী রাজ্য সরকার এই ধরনের হঠকারী পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করবে না।’

153

Leave a Reply Cancel reply