Categories
রাজনীতি

সরগরম রাজ্য রাজনীতি: গ্রেপ্তার কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসহ বিজেপি বিধায়ক ও দলীয় কর্মীরা

ওয়েব ডেস্ক আগস্ট ১৭,২০২১: বিজেপির শহীদ সম্মান যাত্রায় অংশগ্রহণ করতে যাবার পথে গ্রেফতার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুর। জানা গেছে, পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়ানোর পর গ্রেফতার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুর।  শান্তনু ঠাকুরের সঙ্গে বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার ও বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

বিরাটির গৌরীপুর কালিবাড়ি এলাকা থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, এ দিন ‘শহিদ সম্মান যাত্রা’ শুরু করার আগে এই কালিবাড়িতে পুজো দিতে এসেছিলেন শান্তনু ঠাকুর ও তাঁর ভাই বিধায়ক সুব্রত ঠাকুর। কিন্তু তাঁরা  আসার আগেই বিজেপি কর্মী সমর্থকদের গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে চলে যায় পুলিশ। এরপরই মহাজাতি নগরের গৌরীপুরে ওই কালি মন্দিরের কাছে অবস্থান বিক্ষোভে বসেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বনগাঁর বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর।

 পুলিশ শান্তনু ঠাকুর এবং তাঁর বিধায়ক ভাই সুব্রত ঠাকুরকে যাওয়ার অনুমতি দিলেও সঙ্গে আসা বিজেপি কর্মী সমর্থকদের আটকে দেয়। তারপরই পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বচসায় জড়িয়ে পড়েন। অন্যান্য কর্মীদের গ্রেফতার করা হলে সেই গাড়িতে উঠে পড়েন শান্তনু।  এরপরই পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়। শান্তনু ঠাকুর ও বিজেপি নেতাদের গ্রেফতার করার প্রতিবাদে মধ্যমগ্রাম থানায় বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেছেন বিজেপি কর্মীরা ।

অপরদিকে উত্তরপাড়া থেকে ১৫ জন বিজেপি কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। উত্তরপাড়ায় বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকারকে সংবর্ধনা দেওয়ার জন্য অস্থায়ী মঞ্চ তৈরি করা হচ্ছিল। 

আজ সকাল থেকেই রাজ্য রাজনীতি সরগরম। আজ ছিল বিজেপির শহীদ সম্মান যাত্রা কর্মসূচি। আজ সকালেই শিলিগুড়ির বিজেপির দলীয় কার্যালয় যাবার সময় পুলিশ গ্রেপ্তার করে শিলিগুড়ির বিজেপি বিধায়ক শংকর ঘোষ সহ ১৪ জনকে।  এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত শিলিগুড়ির হাসমি চক।

 শিলিগুড়িতে বিজেপি নেতাদের গ্রেফতারি প্রসঙ্গে সুভাষ সরকার বলেন, ‘রাজ্য সরকার ঠিক করেছে কোনও বিরোধী থাকতে দেওয়া হবে না, সেটা হতে পারে না।’

42

Leave a Reply