Categories
রাজ্য

পরিযায়ী আটকাতে জুটমিলে কাজের ব্যবস্থা করল নবান্ন

ওয়েবডেস্কঃ রাজ্যের শ্রম দপ্তরের উদ্যোগে রাজ্যের বৃহত্তম জুটমিল হুকুমচাঁদ জুটমিল বা অন্য মিলে সরাসরি কাজের সুযোগ। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে , ‘অন্য রাজ্যে গিয়ে নয়, নিজের রাজ্যে জুট শিল্পে শ্রমিকের কাজ করুন। মাথা তুলে বাঁচুন’। চাকরির যোগ্যতা হিসাবে ধরা হয়েছে, শারীরিকভাবে সক্ষম ও কর্মঠ সাক্ষর কর্মপ্রার্থী, ১৮ থেকে ৪০ বছরের।

এই ব্যাপারে নজর রাখার জন্য মূল দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে প্রত্যেক জেলার ডিএম-কে। ৪৫ দিন প্রশিক্ষণকালে এঁরা পাবেন ২০০ টাকা ও খাওয়া বাবদ ৮০ টাকা। এর পরের ধাপে ২০০ টাকা বেড়ে হচ্ছে ২৫০ টাকা। থাকা ও খাওয়া নিখরচায়। প্রশিক্ষণের পর দৈনিক বেতন হবে ৩৭০ টাকা। এর সঙ্গে অন্য ভাতা যুক্ত থাকবে। থাকছে হাজিরার জন্য ১৫ টাকা উৎসাহ ভাতা, পিএফ, ইএসআই, বোনাস, গ্র‌্যাচুইটি, মহার্ঘভাতা, বাড়িভাড়া ভাতা, উৎসবের ছুটির মঞ্জুরি, সংবিধিবদ্ধ ছুটি ও পেনশনও।

নয়াগ্রাম, লালগড়, গোপীবল্লভপুর, বিনপুর, গিধনি, শিলদার অষ্টম থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাশ যুবকেরা এসে নাম লিখিয়েছেন বলে জানান , ঝাড়গ্রাম জেলার এমপ্লয়মেন্ট অফিসার অরুণাভ দত্ত ।

আগামী ২০ আগস্ট পর্যন্ত অন্তত চার হাজার যুবককে চাকরি দেওয়ার কথা ভাবা হয়েছে ।আপাতত ৭০টি জুটমিল ৭০ হাজার নিয়োগের ব্যাপারে শ্রম দপ্তরকে আশ্বস্ত করেছে নবান্ন।
মোট ৯০ দিন প্রশিক্ষণের পর হবে স্থায়ী চাকরি। দৈনিক বেতন ৩৭০ টাকা। মূলত জুটমিলের স্পিনিং ও উইভিং বিভাগে হচ্ছে এই চাকরি।

85

Leave a Reply