Categories
রাজ্য

পৃথক রাজ্যের দাবিতে সোচ্চার তৃণমূলেরই আদিবাসী নেতা, অস্বস্তি জোড়া-ফুলে

ওয়েবডেস্ক,আগস্ট১২,২০২১ এতদিন বঙ্গভঙ্গের দাবি জানিয়ে এসেছেন বিজেপির দুই নেতা। এবার তাদের সমর্থন করে গ্রেটার কোচবিহার কে আলাদা রাজ্য ঘোষণা করার দাবি জানালেন তৃণমূল নেতা
বংশীবদন বর্মন । এবং তাকে সম্মতি জানালেন তৃণমূলের এসিএসটি সেলের সাধারণ সম্পাদক রাজেশ লাকরা।

উত্তরবঙ্গের চারটি জেলার স্বায়ত্তশাসনের দাবিও জানিয়েছেন তিনি। এই চারটি জেলা হল দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহার। যদিও দলীয় উপজাতি নেতার দাবিকে গুরুত্ব দিতে চাননি রাজ্যের অনগ্রসর শ্রেণি কল্যাণ ও আদিবাসী উন্নয়ন দফতরের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী বুলু চিক বড়াইক।

রাজেশ লকরা বলেছেন, ‘২০২০ সালের ২৮ ডিসেম্বর যখন তৃণমূলে যোগদান করি তখনও আমার দাবি ছিল উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ার জেলাকে পঞ্চম তফশিলের আওতায় এনে স্বায়ত্তশাসন ঘোষণার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কাগজে প্রায় ৯০ শতাংশ কাজ করেই দিয়েছেন। বাকি সাংবিধানিক রূপের জন্য দরকার জেলার একটা এরিয়া ডিমারকেশনের।’ সেই সাংবিধানিক স্বীকৃতি মিললেই আদিবাসীরা আর সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন না বলে দাবি করেন তিনি’।

বংশীবদন বর্মনকে সমর্থন করে রাজেশ লকরা বলেন, ‘বংশীবদনবাবুকে বলেছি আমরা দু’জনেই ভূমিপূত্র। আমরা দু’জনে একত্রিতভাবেই লড়াই করে নিজেদের দাবি আদায় করব। আমি পৃথক গ্রেটার কোচবিহার রাজ্যের দাবিকে সমর্থন করছি।’ তাঁর দাবি, সংবিধানগত ভাবে প্রাপ্যটুকুই চাইছেন।

28

Leave a Reply