Categories
রাজ্য

দাদাগিরি-তোলাবাজি নয়, ‘দুয়ারে সরকার’শুরুর আগেই সতর্ক করল নবান্ন

ওয়েবডেস্ক, আগস্ট ১১,২০২১: দুয়ারে সরকার চালু হতে না হতেই আসরে নামতে পারে অসাধু ব্যক্তিরা, এ বিষয়ে অবগত নবান্ন এবার প্রতিটি জেলার জন্য বিশেষ সতর্কবার্তা জারি করল। সূত্রের খবর, নবান্নের তরফে মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী বৈঠক প্রতিটি জেলার জেলাশাসককে এই বিষয়ে সতর্ক করলেন।

কী বলা হয়েছে ওই বিশেষ বৈঠকে? মুখ্যসচবি দ্ব্যার্থহীন ভাষায় বলেছেন, দুয়ারে সরকার-এর জন্য সুযোগ সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার নাম করে যাতে কেউ টাকা না তোলে সেদিকে নজর রাখতে হবে। যথাযথ প্রচার করতে হবে। গ্রাম পঞ্চায়েতে কোন অফিসেই এই কাজ করা যাবে না।

পাশাপাশি এও মনে করানো হয়েছে, দুয়ারে সরকার একটি প্রশাসনিক বিষয়। অর্থাৎ সরকারি অফিস এই দুয়ারে সরকার করতে হবে। কোন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব এই দুয়ারে সরকার কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকবে না। সরকারি আধিকারিক রা এই কাজ করবেন।

‌জেলায় জেলায় দুয়ারে সরকার-এর সুবিধে নিতে লাইন পড়তে পারে, এই অনুমানেও বিশেষ বার্তা দিয়েছেন হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। করোনার দুশ্চিন্তাও রয়েছে। এই পরিস্থিতিতেই মুখ্যসচিব বলছেন, করোনা পরিস্থিতিতে মাথায় রেখে যথাযথভাবে ভিড় ম্যানেজ করতে হবে।

দুয়ারে সরকার প্রকল্পটি শুরু হচ্ছে ১৬ অগাস্ট থেকে চলবে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা করা লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করা যাবে এই প্রকল্প থেকেই।

সংশ্লিষ্ট মহল মনে করছে এভাবেই বহু ভালো প্রকল্প নবান্ন চালু করলেও তার গায়ে কালিমা লেগে গিয়েছে দলীয় রাজনীতি ঢুকে পড়ায়, জনজীবনে ঢুকে পড়েছে কাটমানির মতো শব্দবন্ধ। বহু ক্ষেত্রেই সে অর্থে প্রশাসনিক কেউ নন, এমন ব্যক্তি সরকারি কাজে ঢুকে পড়ে ক্যাম্প নিয়ন্ত্রন করেছেন। এ বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রথম থেকেই সতর্ক। কোনও অনিয়ম যাতে না হয় তা নিশ্চিত করতে কড়া বার্তা দিয়ে রেখেছেন তিনি।

53

Leave a Reply