Categories
খেলা

কোয়ার্টার ফাইনালে হার, অলিম্পিকে পদকের আশা জিইয়ে রাখলেন ভিনেশ

ওয়েবডেস্কঃ

টোকিও অলিম্পিকের কোয়ার্টার ফাইনালেই হেরে গেলেন ভারতের পদক জয়ের অন্যতম আশা ভিনেশ ফোগাত। প্রথম রাউন্ডে দুর্দান্ত জয় ছিনিয়ে নিয়েও শেষ আটের লড়াইয়ে হতাশ করলেন হরিয়ানার মহিলা কুস্তিগীর। মহিলাদের ৫৩ কেজি ফ্রিস্টাইল ক্যাটেগরিতে বেলারুশের ভেনেসা কালাদজিনসকায়ার কাছে ৯-৩ পয়েন্টে হেরে গিয়েছেন ভিনেশ। ফল পয়েন্টের মাধ্যমে ম্যাচের ফয়সলা নির্ধারিত হয়। যদিও টুর্নামেন্ট থেকে পুরোপুরি ছিটকে যাননি ভারতীয় কুস্তিগীর। দেশের জন্য পদক জয়ের আরও একটি সুযোগ পাবেন ভিনেশ। অন্যদিকে রেপেচেজ রাউন্ডে হেরে টোকিও অলিম্পিক থেকে বিদায় নিলেন ভারতীয় কুস্তিগীর আনশু মালিক।

দুই বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বেলারুশের ভেনেসা কালাদজিনসকায়ার বিরুদ্ধে শুরু থেকেই ব্যাকফুটে চলে যান ভিনেশ ফোগাত। নিজের দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে ভারতীয় কুস্তিগীরের বিরুদ্ধে প্রথম থেকেই পয়েন্ট অর্জন করতে শুরু করেন বেলারুশের তারকা। একটা সময় ০-৫ পয়েন্টে পিছিয়ে যান ভিনেশ। সেখান থেকে লড়াইয়ে ফিরে ৩ পয়েন্ট অর্জন করেন ভারতীয় কুস্তিগীর। এরপর আক্রমণাত্মক রণনীতিতে আরও পয়েন্ট অর্জন করতে গিয়ে ভুল করে বসেন ফোগাত। পাল্টা আক্রমণে ভিনেশকে তুলে ফেলতে সক্ষম হন ভেনেসা। ফল পয়েন্টের প্রেক্ষিতে ম্যাচ জিতে সেমিফাইনাল পৌঁছে যান বেলারুশের কুস্তিগীর।

যদিও চলতি অলিম্পিকে ভিনেশ ফোগাটের অভিযান শেষ হয়ে যায়নি। কোয়ার্টার ফাইনালে তাঁকে হারানো বেলারুশের কুস্তিগীর মহিলাদের ৫৩ কেজি ফ্রিস্টাইল ক্যাটেগরির ফাইনালে পৌঁছলে রেপেচেজ রাউন্ড খেলে ব্রোঞ্জ পদক জয়ের সুযোগ পেতে পারেন ভিনেশ। যদিও জয় দিয়ে টোকিও অলিম্পিক অভিযান শুরু হয়েছিল ভারতীয় কুস্তিগীরের। প্রথম ম্যাচে সুইডেনের সোফিয়া ম্যাটসনকে ৭-১ পয়েন্টে হারান ভিনেশ। একই দিনে মহিলাদের ৫৭ কেজি ফ্রিস্টাইল ক্যাটেগরির রেপেচেজ রাউন্ডেও হেরে গিয়েছেন ভারতের আনশু মালিক। রাশিয়ান অলিম্পিক কমিটির ভালেরিয়া কোবলোভার কাছে ১-৫ পয়েন্টে হেরে টোকিও গেমস থেকে বিদায় নিয়েছেন ভারতের মহিলা কুস্তিগীর।

আজই পুরুষদের কুস্তি বিভাগের ফাইনাল খেলতে নামবেন ভারতের রবি কুমার দাহিয়া। বুধবারের সেমিফাইনালের শুরু থেকেই ভারতীয় কুস্তিগীরের বিরুদ্ধে পয়েন্ট অর্জন করতে শুরু করেছিলেন কাজাখস্তানের নুরিসলাম সানায়েভ। একটা ৩-৯ পয়েন্টে পিছিয়ে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ভারতীয় কুস্তিগীরের দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন ঘটে। ম্যাচের একদম শেষ মুহুর্তে দুর্দান্ত দক্ষতায় ফল পয়েন্ট হাসিল করেন দাহিয়া। ৭-৯ পয়েন্টে পিছিয়ে থাকা সত্ত্বেও ম্যাচ শেষ হওয়ার ১০ সেকেন্ড আগে রবিকে বিজয়ী বলে ঘোষণা করা হয়। কোয়ার্টার ফাইনালে বুলগেরিয়ার জিওরজি ভানগেলভকে ১৪ (এসইউপি)-৪ পয়েন্টে হারিয়েছিলেন রবি। প্রথম রাউন্ডে কলম্বিয়ার টিগরেরোস আরবানোকে ১৩-২ পয়েন্টে হারিয়েছিলেন ভারতীয় কুস্তিগীর। এই পর্যায়ে রূপো নয়, এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে দুই বারের সোনাজয়ী ২৩ বছরের কুস্তিগীরের কাছ থেকে অলিম্পিকের সেরা খেতাব চাইছে দেশ।

55

Leave a Reply