Categories
crime

নিখোঁজ ছাত্রের মিলল ঝুলন্ত মৃতদেহ

ওয়েবডেস্ক আগস্ট ৩,২০২১: : চুরির অপবাদ মাথায় নিয়ে নিখোঁজ ছাত্রের মিলল ঝুলন্ত মৃতদেহ। আজ মঙ্গলবার সকালে বাড়ির অদুরের কসবা পুলিশ ব্যারাক সংলগ্ন মাঠের আমগাছ থেকে ছাত্রের গলায় দড়ির ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত দেহ মেলে। তারপর খবর পেয়ে পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিক্যাল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। ঘটনা ঘিরে এলাকায় ছড়ায় চাঞ্চল্য।
মৃত ছাত্র নিলয় বসু (১৭)। দেবীনগর কৈলাশচন্দ্র রাধারাণী বিদ্যাপীঠের দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়া।স্থানীয় দক্ষিণ কসবায় বাড়ি। যদিও ওই ছাত্রকে খুন করা হয়েছে বলে মৃতের পরিবারের অভিযোগ। এদিন মৃতের বাবা মানিক বসুর অভিযোগ,”আমার ছেলেকে খুন করা হয়েছে। কিন্তু রায়গঞ্জ থানার পুলিশের কাছে খুনের অভিযোগ নেয়নি। তাই রায়গঞ্জ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছি। থানায় অভিযোগ না নেওয়া পর্যন্ত ছেলের দেহের ময়নাতদন্ত করতে দেওয়া হবে না।” মৃতের বাবার আরও অভিযোগ,” ওই স্কুলের এক শিক্ষক কৌশিক ঘোষ আমার ছেলেকে ল্যাপটপ চুরির অপবাদ দিয়েছে। তারপর অভিযুক্ত ওই শিক্ষক এবং প্রাক্তন পুলিশ কর্মী অলোক রায় সহ কয়েকজন যুবক আমার বাড়িতে গিয়ে ছেলেকে হুমকি দেয়। তারপর বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। শেষপর্যন্ত এদিন ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।”
ঘটনার সূত্রপাত, সোমবার ওই স্কুলের বিজ্ঞান শাখার শিক্ষক কৌশিক ঘোষের ভাড়া বাড়ি থেকে ল্যাপটপ চুরি হয়। ওই শিক্ষক ওই স্কুলের কাছেই চন্দন রায় নামে এক বাসিন্দার বাড়িতে ভাড়া থাকেন। বাড়ির মালিকের ভাই অলোক রায় রায়গঞ্জ থানার প্রাক্তন পুলিশ কর্মী। মৃতের বাবার অভিযোগ,” সোমবার ওই প্রাক্তন পুলিশ কর্মী অলোক রায় এবং শিক্ষক ও কয়েকজন ছেলে আমার ছেলেকে চোর অপবাদ দিয়ে পুলিশের ভয় দেখায়। তারপর থেকে ছেলেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। তারপর এদিন ঝুলন্ত দেহ মেলে।”
তারথেকে নিয়ে যাওয়া রায়গঞ্জ দক্ষিণ তবে ছাত্রের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় জড়িত অভিযোগের তির ওই স্কুলের এক বিজ্ঞান বিভাগের সহ শিক্ষক কৌশিক ঘোষ বলেন,” আমার ল্যাপটপ ভাড়া বাড়ি থেকে সোমবার চুরি হয়েছে। স্কুলের প্রধান শিক্ষক উৎপল দত্ত এবং রায়গঞ্জ থানায় জানিয়েছি।কিন্তু চুরির ব্যাপারে কোন ছাত্রের নামে অভিযোগ করিনি।তাছাড়া যে ছাত্রটি মারা গেছে,তার বাড়িতেও আমি যায়নি।আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা হচ্ছে।” তবে কৈলাশচন্দ্র রাধারাণী বিদ্যাপীঠের প্রধান শিক্ষক উৎপল দত্ত বলেন,” স্কুলের বাইরের ঘটনা,ফলে আমি কিছু বলব না।”অন্যদিকে রায়গঞ্জ থানার আইসি সুরোজ থাপা অবশ্য বলেন,”থানায় কেউ অভিযোগ দিতে এসেছিল কিনা, তা আমি জানি না।” তবে নবনিযুক্ত রায়গঞ্জ পুলিশ সুপার মহম্মদ সানা আখতার বলেন যে তিনি আজই রায়গঞ্জ পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেছেন। বিশদে খোঁজখবর নেবেন।

112

Leave a Reply